চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ
Oikko

এএফসি কাপের সপ্তাহের সেরার তালিকায় বসুন্ধরার কিংসের দুই

Oikko SME

এএফসি কাপে স্বপ্নের শুরু হয়েছে বসুন্ধরা কিংসের। মালদ্বীপের টিসি স্পোর্টসের বিপক্ষে ৫-১ গোলের জয়ে নিজেদের অভিষেকটা রাঙিয়েছে বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নরা। দলের জয়ে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন বসুন্ধরার নতুন আর্জেন্টাইন তারকা হার্নান বার্কোস। নতুন দলের হয়ে প্রথম ম্যাচেই করেছেন চার গোল।

Reneta June

বার্কোসের সঙ্গে সমানে পাল্লা দিয়েছেন দলের গোলরক্ষক আনিসুর রহমান জিকো। এক ম্যাচে ঠেকিয়ে দিয়েছেন তিন পেনাল্টি। এই পারফরম্যান্সে দুজনের সামনে সুযোগ এএফসি কাপে সপ্তাহের সেরা খেলোয়াড় হওয়ার।

হার্নান বার্কোস: ফুটবলের জলদস্যু
গোল করার পর বাঁ হাতে চোখ ডেকে ডান হাত উঁচিয়ে উল্লাস, যেন চোখে ঠুলী পড়া জলদস্যুর বুনো উদযাপন! গোল করার পর এভাবে উদযাপন করায় বার্কোসের নামই হয়ে গেছে ‘এল পাইরেটা’ বা জলদস্যু।

আজ এই ক্লাব, কাল সেই ক্লাব করে ফুটবলের জলদস্যু হার্নান বার্কোস এখন বসুন্ধরা কিংসের খেলোয়াড়। দলটির হয়ে প্রথম ম্যাচ খেলতে নেমেই তার উদযাপনকে জনপ্রিয় করে তুলেছেন আর্জেন্টিনা জাতীয় দলের সাবেক এই ফুটবলার। টিসি স্পোর্টসের একাই করেছেন চার গোল! সবচেয়ে বড় কথা বসুন্ধরা অধিনায়ক ড্যানিয়েল কলিন্দ্রেসের সঙ্গে তার জুটিও জমে উঠেছে বেশ!

আনিসুর রহমান জিকো: দ্য ওয়াল
‘দ্য ওয়াল’! বসুন্ধরার তরুণ গোলরক্ষককে এ উপাধিতেই ভূষিত করেছে এএফসি। প্রতিযোগিতাটির অভিষেকে কোন গোলরক্ষক এতটা উজ্জ্বল পারফরম্যান্স করেনি বলেও জানাচ্ছে এএফসি। গোলরক্ষকের হ্যাটট্রিক হলে সেটা জিকোই করেছেন বলে নিজের ওয়েবসাইটে জানাচ্ছে এএফসি। কারণ একটি নয়, দুটি নয়, এক ম্যাচে তিনটি পেনাল্টি ঠেকিয়ে দেন জিকো।

ম্যাচের ২০ মিনিটে টিসির ইসমাইল ঈসাকে প্রথম দফায় ঠেকিয়ে দেন জিকো। যদিও ফিরতি বলে শট নিয়ে গোল করেন মালদ্বীপের এই ফরোয়ার্ড।

৫০ থেকে ৫২, এই তিন মিনিটের মধ্যে আরও দুবার ঈসাকে ঠেকিয়ে দেন জিকো। প্রথম দফায় ডানদিকে ঝাঁপিয়ে শট ঠেকিয়ে দেন, পরে রেফারি সেই শট বাতিল করে আবারও শট নিতে বলেন। ঈসা এবার বামে শট নিলে জিকো সেটাও ঠেকিয়ে দেন। একদিকে বার্কোস, অন্যদিকে বারের নীচে জিকোর নৈপুণ্যে সেদিন হাঁসফাঁস করতে করতে মাঠ ছেড়েছে মালদ্বীপের জায়ান্ট টিসি।

এএফসির সপ্তাহের সেরা পাঁচ পারফরম্যান্সের মধ্য থেকে একজনকে সেরা হিসেবে বেঁছে নেয়ার সুযোগ থাকছে ভোটারদের সামনে। বসুন্ধরা ভক্তরা চাইলে এএফসির অফিসিয়াল পেজে গিয়ে দিতে পারেন জিকো অথবা বার্কোসের মধ্যে যেকোনো একজনকে ভোট।

Oikko Uddokta