চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

উহান ল্যাব বিষয়ে অ্যান্থনি ফাউসির পাশে হোয়াইট হাউস

‘করোনাভাইরাস উহানের ল্যাব থেকে ছড়িয়েছে’-এই তত্ত্বটি অনেকদিন আলোচনা বন্ধ ছিলো। তবে সম্প্রতি আবারও বিতর্কে এসেছে মার্কিন সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ ডা. অ্যান্থনি ফাউসির বক্তব্য ও তার ফাঁস হওয়া কিছু ইমেইল থেকে।

প্রথম দিকে ফাউসি উহান ল্যাব বিষয়ে তেমন পাত্তা না দিলেও সম্প্রতি এই বিষয়ে আলোচনা করছেন এবং ভাইরাস কীভাবে ছড়ালো তা তদন্তের কথা বলছেন। আর তার সঙ্গে সুর মিলিয়েছেন স্বয়ং মার্কিন প্রেসিডেন্টও।

বিজ্ঞাপন

অ্যান্থনি ফাউসি চীনের উহানের ভাইরোলজি ইনস্টিটিউটের ৩ গবেষক ও কয়েক বছর আগে একটি বাদুড়ের গুহায় প্রবেশ করা ৬ খনি শ্রমিকের মেডিকেল রেকর্ড প্রকাশে বেইজিংয়ের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

তিনি বলেছেন, কোভিড-১৯ উহানের ল্যাব থেকেই প্রথম ছড়িয়েছিল কিনা এবং ৯ জনের অসুস্থতার ধরণ ও সংশ্লিষ্ট তথ্য সে রহস্যের সমাধানে গুরুত্বপূর্ণ সূত্র দিতে পারে।

এই বিষয়ে ২০২০ সালের জানুয়ারি থেকে ৩ হাজার পৃষ্ঠার মতো ইমেইল ওয়াশিংটন পোস্টের মাধ্যমে প্রকাশ হয়েছে ,যেখানে করোনার শুরু থেকে সরকার, বিদেশী প্রতিনিধি, গণমাধ্যম সহ বিভিন্ন দিকের কথোপকথন প্রকাশ পায়। এসব মেইলে ফাউসি ও তার সহকর্মীদের বিভিন্ন কথোপকথনে চীনের উহানের ল্যাব থেকে করোনা ছড়িয়েছে এমন সন্দেহজনক তথ্য মিলছে।

যদিও চীন এই বিষয়টি সরাসরি অস্বীকার করে আসছে এবং এধরণের আলোচনা থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানিয়ে আসছে।

সম্প্রতি অ্যান্থনি ফাউসির বক্তব্যে আক্রণাত্মক সমালোচনা করেছে চীনা গণমাধ্যম গ্লোবাল টাইমস। চলতি সপ্তাহে প্রকাশিত এক নিবন্ধের শিরোনাম ছিলো-‘যুক্তরাষ্ট্রের অভিজাতদের নৈতিকতায় আরও অধঃপতন, এদের মধ্যে আছেন ফাউসিও’।

যে নিবন্ধে মার্কিন শীর্ষ সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞের বিরুদ্ধে করোনাভাইরাস উহানের একটি ল্যাব থেকে ছড়িয়েছে এ সংক্রান্ত ‘ষড়যন্ত্র তত্ত্বে হাওয়া দিয়ে’ চীনের বিরুদ্ধে ‘বড় ধরনের মিথ্যাকে উসকে’ দেওয়ার অভিযোগ এনেছেন হু।

এছাড়াও গ্লোবাল টাইমসে প্রকাশিত আরেকটি নিবন্ধে বলা হয়েছে, ফাউসি ‘চীনা বিজ্ঞানীদের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছেন’।

কিন্তু অ্যান্থনি ফাউসির বক্তব্য ও ফাঁস হওয়া ইমেইল বিষয়ে তার পাশে দাঁড়িয়েছে হোয়াইট হাউস।

মার্কিন প্রেস সেক্রেটারি জেন সাকি বলছেন, করোনা মহামারীর বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের জন্য অ্যান্থনি ফাউসি একজন ‘অবিশ্বাস্য সম্পদ’।

বৃহস্পতিবার এক প্রেস ব্রিফিংয়ে তিনি বলেন, মার্কিন প্রেসিডেন্ট এবং তার প্রশাসন বিশ্বাস করে যে, মহামারী নিয়ন্ত্রণে ডা. অ্যান্থনি ফাউসি অবিশ্বাস্য ভূমিকা পালন করেছেন।

প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনও উহান ল্যাব সংক্রান্ত তত্ত্বে সায় দিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন করোনাভাইরাসের উৎপত্তি নিয়ে সুনির্দিষ্ট তথ্য প্রদানের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দা সংস্থাগুলোকে নির্দেশ দিয়েছেন।

বিশ্বে চলমান মহামারির জন্য দায়ী করোনাভাইরাসের উৎপত্তি নিয়ে বিস্তারিত তদন্ত করে আগামী ৯০ দিনের মধ্যে প্রতিবেদন পেশ করার নির্দেশ দিয়েছেন জো বাইডেন।

 

বিজ্ঞাপন