চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ঈদে দেশের গান, পঞ্চকন্যা এবং একটু অভিমান

তার জীবনটাই গান। আর অনেকখানি অভিমান। আবার সেই অভিমান ভেঙ্গে ফিরেও আসেন গানের ভুবনে। তৈরী করেন নিজের আপন রুচির গানের দুনিয়া। আলোকিত করেন চারপাশ পরিশুদ্ধ বচনে, নান্দনিক ধ্রুপদী গায়কী আর খোঁপায় গোঁজা ফুলের অনবদ্য সাজে। তিনি সাত সাগর পাড়ি দিয়ে সৈকতে পড়ে থাকা পিতার সন্তান। ভীষণ ভাই-বোন অন্তপ্রাণও।

বাছাই করে গান করেন তিনি। তিনি করেন এক মুঠো গান অথবা গেয়ে ওঠেন আকাশ ও সমুদ্র অপার। চারটে দেওয়াল হঠাৎ খেয়াল থেকে আয়লান কুর্দিকে নিয়ে গেয় ওঠেন সাগর বেলায় ভেসে আসে যে শিশু সে আমার সন্তান। ঈদের আনন্দযজ্ঞে সামিল হয়েছেন মিক্সড, সিঙ্গেল আর নাটকের টাইটেল গানে। ২০০৭ সালের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার এবং ২০০৮ সালে চ্যানেল আই পুরস্কার প্রাপ্ত তিনি ফাহমিদা নবী। কাছের মানুষের নুমা’দি। বিখ্যাত গায়ক মাহমুদুন্নবীর কন্যা এবং শিল্পী সামিনা চৌধুরী এবং পঞ্চম এর বোন।

বিজ্ঞাপন

‘এসো দুচোখ ভরে দেখে যাও আমারই ধানশালিকের দেশ।’ সুজন হাজংয়ের লেখা জাদু রিছিলের সুরে গানটি ব্যক্তিগত ইউটিউব চ্যানেলের জন্য গেয়েছেন ফাহমিদা নবী। তিনি বলেন, দেশ না থাকলে কোন ঈদ পালন করতাম! তাই ঈদ আর দেশের গান পাশাপাশি চলতেই পারে।’

এছাড়া প্রবাসী আসম মাসুমের কথা আর সুমন কল্যাণের সুরে গেয়েছেন ‘ছুঁই না ছুঁই’। লেজার ভিশনের ঈদ আয়োজনে তাদের ইউটিউবে ভিডিওসহ প্রকাশ হয়েছে গানটি। এদিকে অনেকদিন পরে প্রিন্স মাহমুদের সুরে গেয়েছেন ‘কতদূর’ শিরেনামের গান। গানটি লিখেছেন ইব্রাহীম ফাতেমী।

প্রিন্স মাহমুদের পঞ্চাশতম অ্যালবাম হিসেবে জি-সিরিজ থেকে প্রকাশ হয়েছে ‘পঞ্চকন্যা’। শিরোনামের নারী শিল্পী কেন্দ্রিক মিশ্র গানের অ্যালবাম। যেখানে আরো গেয়েছেন ন্যান্সি এলিটা, কণা ও কোণাল। ফাহমিদা নবী বলেন,  পঞ্চকন্যায় আমি অগ্রজ কন্যা। ভালোই লেগেছে। প্রিন্স এর সঙ্গে আগেও আমি কাজ করেছি।  ও অনেক সময় নিয়ে যত্ন দিয়ে কাজটা করে। নিখুঁত করার চেষ্টা করে। ওর কাজ দেখে মনে হয় এটাই বুঝি প্রেম। শ্রোতাদের প্রাধান্য দিয়ে শ্রোতা রুচি গঠনে চেষ্টা করে। তাই ওর গান এত ভালো হয়।’

এদিকে একটি ঈদের নাটকের শীর্ষ সংগীতে কণ্ঠ দিয়েছেন ফাহমিদা নবী। ‘ভালোবাসতেই’ নামের নাটকটির গানের সুর করেছেন তাসনু।

এদিকে গীতিকার শফিক তুহিনের দায়ের করা মামলায় গায়ক আসিফের কারাবাস প্রসঙ্গে ফাহমিদা নবী বলেন, বিষয়টি নিয়ে আমার মন্তব্য করার কিছু নেই। আমাদের মন্তব্যে কিবা এসে যায়’। যেন ঝরে পড়ে একটু অভিমান।

ঈদে দেশেই কাটবে বলে চ্যানেল আই অনলাইনকে জানান ফাহমিদা নবী।