চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ
Partex Group

ঈদে ওটিটির ‘সবচেয়ে বড় চমক’ ছিলেন শাহরিয়ার নাজিম জয়

বিজ্ঞাপন

অভিনয়ে ছিলেন নিয়মিত। শুধু ছোট পর্দায় নয়, বড় পর্দাতেও সফল তিনি। হঠাৎ অভিনয় ছেড়ে উপস্থাপনায় পা রাখেন। দেখেন চূড়ান্ত সফলতার মুখ। নাম ডাক তৈরি করেন অল্প সময়েই। বলছি শাহরিয়ার নাজিম জয়ের কথা।

তিনি যে অভিনেতা, সেটা যেন অনেকটাই ভুলতে বসেছিলেন! তবে আশার কথা, ‘কামব্যাক’ করেছেন সেই শাহরিয়ার নাজিম জয়। অভিনয় ক্যারিশমায় ঈদে দেশিয় ওটিটির দর্শকদের চমকে দিয়েছেন। জয়ের অভিনয় দেখে নড়েচড়ে বসেছেন অনেকেই। এও বলেছেন, এই জয়কে আগে তো দেখিনি!

pap-punno

দেশিয় ওটিটি প্লাটফর্ম চরকি’র প্রযোজনায় রায়হান রাফীর পরিচালনায় ‘৭ নাম্বার ফ্লোর’ ওয়েব ফিল্মে জয়ের অভিনয়ে আলোচনা মুখর নেটদুনিয়া। তারা বলছেন, জয় যে জাত অভিনেতা সেই প্রমাণ পাওয়া গেছে। তার উপস্থাপনা নিয়ে আলোচনার পাশাপাশি সমালোচনা আছে, তবে অভিনয় নিয়ে কোনো সমালোচনা নেই! আছে শুধু আলোচনা আর প্রশংসা।

অভিনেতা হিসেবে জয়কে যদি কাজে লাগানো যায় তাহলে হয়তো তিনি আরও ভালো কাজ উপহার দিতে পারবেন। জয় নিজেও জানান, আগামীতে ভালো চরিত্র ও গল্প পেলে অবশ্যই কাজ করবেন। শাহরিয়ার নাজিম জয় বলেন, পরিচালকরা আমাকে ভালো কাজে যুক্ত করতে পারেন। আমি যে পারি সেটা হয়তো দেখাতে পেরেছি। এবার অভিনয়ে ফিরে পেয়েছি শুধুই প্রশংসা।

Bkash May Banner

‘যখন প্রথম প্রথম নাটকে অভিনয় করতাম তখন নাটক প্রচার হলে প্রচুর ফোন, মেসেজ পেতাম। অনেক বছর অভিনয়ের জন্য আবার ফোন বা মেসেজ পাইনি। ওটিটিতে কাজ করে বলতে গেলে অভিনয় অঙ্গনে আমার পুনর্জন্ম হয়েছে। সেই পুরনো দিনের মতো মানুষের ভালোবাসা পাচ্ছি। সত্যি বলতে আমি আশাই করিনি এতোটা প্রশংসা পাবো। এমন সাড়ায় আমি এক কথায় মুগ্ধ।

চ্যানেল আই অনলাইনকে শাহরিয়ার নাজিম জয় বলেন, অবশ্যই আমার অভিনয়ে কামব্যাকের কৃতিত্ব পরিচালক রায়হান রাফীর। ও আমাকে যেভাবে হাইলাইট করেছে অন্য কেউ হয়তো সেভাবে করতো না। আমার প্রতি আলাদা দৃষ্টি তৈরি করেছে রাফি। শুধু আমার এন্ট্রি সিকুয়েন্সের জন্য রাফী পাঁচ লাখ টাকা খরচ করেছে। ও যেটা করেছে এটা আমি কখনও ভুলবো না।

জয় মনে করেন, দর্শক তাকে অভিনয়ে পেতে চাইলেও এই চাওয়াটা তার উপর নির্ভর করে না। বর্তায় পরিচালকদের উপর।

তিনি বলেন, পরিচালকেরা তাদের দায়িত্ব পালন করবেন আমাকে ভালো চরিত্র দিয়ে এবং কাজে সম্পৃক্ত করে। আমি তো আগেও অভিনেতা ছিলাম। তাহলে আমাকে অভিনয় ছাড়তে হয়েছিল কেন? শুধুই কি আমার দোষ ছিল? না। শুধু আমার দোষের জন্য না। মিডিয়া, প্রডিউসারদের পলিটিক্স এবং পরিচালকদের অনাগ্রহ- এসব কারণেই আমাকে অভিনয় থেকে দূরে সরে যেতে হয়।

তবে দ্বিতীয় ইনিংসে এসে সব পলিটিক্সের উর্ধ্বে গিয়ে কাজ করতে চাই। ভালো কাজ করতে চাই। নির্মাতাদের উদ্দেশ্যে বলবো, ভালো কাজ হলে আমাকে ডাকবেন। আমার কথা চিন্তা করবেন। আশা করি, আমার সেরাটা দিয়ে সবাইকে মুগ্ধ করতে পারবো।

বিজ্ঞাপন

Bellow Post-Green View
Bkash May offer