চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ঈদের নাটকের গল্পে সামাজিক স্যাটায়ার

সামাজিক স্যাটায়ার গল্পের আদলেই তৈরী হয়েছে কমেডি গড়ানার সাত পর্বের ধারাবাহিক নাটক ‘জামাই আমার পয়সাওয়ালা’

সমাজে অনিয়ম যখন নিয়ম হয় যায়, শিক্ষা যদি তার আদর্শ হারিয়ে হয় পথভ্রষ্ট। তখন একটু লক্ষ্য করলেই দেখা যায় সে সমাজের মাঝে ‘স্যাটায়ার’ চলছে। এরকম গল্পের আদলেই তৈরী হয়েছে কমেডি গড়ানার সাত পর্বের ধারাবাহিক নাটক ‘জামাই আমার পয়সাওয়ালা’।

নাটকটির পরিচালক কাজী সাইফ আহমেদ জানান, এটি মুলত একটা স্যাটায়ার। যেখানে ঘুষ খাওয়াটা কোন নিন্দনীয় ব্যাপার নয়, বরং গর্বের বিষয়, ঈর্ষানীয় ব্যাপার! পুলিশি ঝামেলা এড়ানোর জন্য আরফান একটা বড় অংকের ঘুষের টাকা তার কৃপণ শ্বশুড়ের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে রাখার মধ্য দিয়েই গল্পটা শুরু হয়। কৃপণ শ্বশুড়কে ব্যাপারটা চাপিয়ে রাখতে বললেও তিনি তা পারেন না। সবাই জেনে যায় তার জামাই একটা পয়সাওয়ালা ঘুষ খোর জামাই। এতে করে সমাজে অধিকাংশ ক্ষেত্রেই আরফানের গ্রহণযোগ্যতা ও প্রভাব-আদর বেড়ে যায়। তৈরি করে স্যাটায়ার উপজীব্য বিষয়গুলো। তবে গল্পটা শেষ হয় তার জীবনের চরম বিপর্যয়ের মাধ্যমে। যা সেই পুরানো প্রবাদ বাক্যের সত্যতাকে আবার সামনে নিয়ে আসে- ‘সততাই জীবনের সর্বোত্তকৃষ্ট প্রন্থা’।

বিজ্ঞাপন

ধারাবাহিকটি রচনা করেছেন মমর রুবেল। জামাই চরিত্রে অভিনয় করেছেন আখম হাসান। এছাড়াও অভিনয় করে্ছেন নাদিয়া আহমেদ, ফারজানা রিক্তা, অরিন, ফারুক আহমেদ, রাশেদ মামুন অপু, সঞ্জয় রাজ, দিলু মজুমদার, তানভীর মাসুদ, সূচনা শিকদার, মীর জাহিদ হাসান প্রমুখ।

বিজ্ঞাপন

কমেডি ধাঁচের গ্রামীণ পটভূমিতে লেখা ধারাবাহিকটি দেখানো হবে একটি বেসরকারি টেলিভিশনে। ইভ্যালি অন-লাইন শপ নিবেদিত ধারাবাহিকটি এসজে মোশন পিকচার্স এর ব্যানারে নির্মিত হয়েছে। প্রযোজনা করেছেন কাজী সাইফুল ইসলাম সোহেল।