চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ
Partex Group

ঈদেও প্রশংসিত অমি, শোনালেন ব্যস্ততায় ডুবে থাকার গল্প

বিজ্ঞাপন

বছর জুড়ে ‘ব্যাচেলর পয়েন্ট’ নাটক দিয়ে আলোচনায় থাকেন টিভি নাটকের অন্যতম দর্শকপ্রিয় নির্মাতা কাজল আরেফিন অমি। ব্যতিক্রম হল না ঈদ মৌসুমে! এবার ঈদে পাঁচটি নাটক বানিয়েছেন এই নির্মাতা। শত শত নাটকের ভিড়ে জনপ্রিয় এ নির্মাতার তিনটি নাটক ইউটিউব ভিউ ও ট্রেন্ডিয়ের শীর্ষে!

বিশেষ করে অমির ‘ব্যাচেলর রমজান’, ‘ফিমেল ২’ নাটক দুটি থেকে ভরপুর বিনোদন নিচ্ছেন দর্শক। এসব নাটকের ছোট ছোট মজার ক্লিপস ঘুরছে ফেসবুকের বিভিন্ন পেজে। অমির ভাষ্য, দর্শক রেসপন্স এক কথায় সুপার। ভিউয়ের দিক থেকে ম্যাসিভ রেসপন্স। ঈদ নাটকের টপ ভিউসের তিনটি (ব্যাড বাজ, ব্যাচেলর রমজান, ফিমেল ২) কনটেন্টই আমার।

pap-punno

কাজল আরেফিন অমির কথা, এই রেসপন্স তার প্রত্যাশার চেয়েও বেশি। এসব কাজ দর্শকের উপহার দিতে পেরেছেন শিল্পীদের আন্তরিক সহযোগিতার কারণে। এজন্য তিনি তার টিম, শিল্পী, প্রযোজক, স্পন্সরের পাশাপাশি দর্শকদের কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

চ্যানেল আই অনলাইনকে পরিচালক অমি বলেন, সিক্যুয়ালে করতে গেলে আগের কনটেন্টের রেসপন্স টপকানোর চাপ থাকে। মানুষ নতুন এ কাজগুলো এত আনন্দ নিয়ে দেখছে যে সেই চাপ কেটে গেছে। সন্ধ্যায় ‘হেল্প মি’ প্রকাশ হতে যাচ্ছে। এখন কিছুটা রিল্যাক্স মুডে আছি। ঈদের আগে ও পরে মিলিয়ে দিনরাত কাজের মধ্যে ডুবে ছিলাম। পরিবারকে একদম সময় দিতে পারিনি।

Bkash May Banner

আবেগঘন কণ্ঠে অমি বললেন, আমার স্ত্রী আমাকে ও আমার কাজকে ভীষণভাবে বোঝে ও সাপোর্ট করে। কিন্তু কাজের ব্যস্ততায় মাঝে মধ্যে সময় দিতে না পারার কারণে তারও যে খারাপ লাগে সেটা আমি বুঝি। তার জায়গায় আমি থাকলেও হয়তো আরও বেশি রিয়েক্ট করতাম। পুরো রমজানে সে আমাকে একদিন বাসায় ইফতারে পেয়েছে। ঈদ শপিং করেছে একা। তবে আমি কাজ করে যে আত্মতৃপ্তি পাই, সেটা লাইফপার্টনার হিসেবে সে কাছ থেকে দেখে। সে নিজেও আমার আত্মতৃপ্তিতে অভিভূত হয়।

কথায় কথায় ঈদ ব্যস্ততার ঝড় শোনা গেল অমির কথায়। মুঠোফোনে ওপাশ থেকে তিনি জানালেন, তার উপর দিয়ে রীতিমত এক ঝড় গেছে। বললেন, ৩ মে ঈদ হয়েছে। কিন্তু এডিটিং প্যানেলে ঢুকেছি ১মে। প্রতিদিন সেহরির সময় বাসায় গিয়েছি। আবার ১১টার সময় প্যানেলে এসেছি। চাঁদ রাতে বিকেলে প্যানেলে ঢুকেছি, ঈদের দিন বিকেলে বের হয়েছি। একই পোশাকে ছিলাম। ঈদের পাঞ্জাবী পরতে পারিনি, সেমাই খেতে পারিনি। কাজের এত চাপ ছিল যে বার্গার দিয়ে দুপুরের খাবার সারতে হয়েছে।

‘বিকেলে বাসায় গিয়ে ফ্রেশ হয়ে দেখি বউ মুড অফ করে বসে আছে। তাকে নিয়ে আবার প্যানেলে এসে ব্যাচেলর রমজানের ট্রেলার বানিয়েছি। আড়াই ঘণ্টা ধরে সে এডিটিং প্যানেলে বসে থাকার পর বাসায় ফিরে যাই।’

দুপুরে অমির সঙ্গে যখন আলাপ হচ্ছিল তখন তিনি ছিলেন এডিটিং প্যানেলে। বলছিলেন, ব্যাচেলর পয়েন্ট সিরিয়ালের আগামী এপিসোডের ফাইনাল রিভিউ চেক দিচ্ছি। মঙ্গলবার রাত পর্যন্ত ঈদের কাজগুলো নিয়ে মহাব্যস্ত থাকতে হয়েছে। ঠিকমত সব কাজ ডেলিভারি দিতে পেরেছি। চারটি কাজ দর্শক উপভোগ করছে। বুধবার থেকে আমার ঈদ উদযাপন করা শুরু হয়েছে।

‘ঈদের দিনের খাওয়া গতকাল বাসায় রান্না হয়েছে। ঠিকভাবে ঘুমিয়েছি। পরে বউকে নিয়ে বের হতে পেরেছি। ঈদের কাজগুলোর থেকে মানুষের এত ভালোবাসা পাচ্ছি, সেই কারণে ঈদের সময় যে ধকল গেছে সেগুলো আর কষ্ট মনে হচ্ছে না।’

বিজ্ঞাপন

Bellow Post-Green View
Bkash May offer