চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ই-বিপণন বর্তমান সময়ের দাবি: বিসিক চেয়ারম্যান

বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প করপোরেশনের (বিসিক) চেয়ারম্যান মো. মোশতাক হাসান ই-বিপণনকে বর্তমান সময়ের দাবি বলে মন্তব্য করেছেন।

মঙ্গলবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ের আইসিটি টাওয়ারের এটুআই কার্যালয়ে বিসিক এটুআই-এর মধ্যে এক সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে তিনি এ মন্তব্য করেন।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

এই সমঝোতা স্মারকের উদ্দেশ্য হলো ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নে নাগরিক সেবায় উদ্ভাবনকে অগ্রাধিকার দিয়ে বিসিক এবং এটুআই-এর যৌথ উদ্যোগ গ্রহণ।

অতিরিক্ত সচিব মোশতাক হাসান বলেন, বিসিক সরকারের ২০৪১ সালের এ উন্নত অর্থনীতিতে উন্নয়নের রূপরেখার সাথে সামঞ্জস্য রেখে মহা পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে। এর আওতায় বিসিক পঞ্চম প্রতিষ্ঠান হিসাবে ওয়ান স্টপ সেবা প্রদান শুরু করতে যাচ্ছে। ই-বিপণন বর্তমান সময়ের দাবি। এটুআই এর সাথে এই সমঝোতা স্মারকের মাধ্যমে এটুআই-এর একশপ উদ্যোগের সাথে যুক্ত হয়ে উদ্যোক্তারা ই-বিপণন করতে পারবেন।

বিজ্ঞাপন

বিসিক চেয়ারম্যান আরও বলেন,  বিসিকের উদ্যোক্তারা একশপের লজিস্টিকস সেবা এবং অনলাইনে পেইমেন্ট সুবিধা গ্রহণ করতে পারবেন। পাশাপাশি সারাদেশে ছড়িয়ে থাকা একশপের বিস্তৃত নেটওয়ার্কের অন্তর্ভুক্ত হতে পারবেন। দেশে এবং দেশের বাইরে ই-কমার্স কানেক্টিভিটি তৈরিতে একশপ সহযোগিতা দিবে।

অনুষ্ঠানে এটুআই-এর প্রকল্প পরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) ড. মো. আব্দুল মান্নান বলেন, একপে এবং এটুআই-এর স্কিলস পোর্টাল নিয়ে বিসিক এবং তাদের উদ্যোক্তাদের কার্যক্রম ডিজিটাল সেবায় রূপান্তর করা সম্ভব হবে। ইতিমধ্যে একশপ মালয়েশিয়া, সিঙ্গাপুর এবং অন্যান্য দেশে প্রান্তিক উদ্যোক্তাদের পণ্য বিপণন করছে।

সমঝোতা স্মারক অনুযায়ী প্রাথমিক পর্যায়ে বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প করপোরেশনের (বিসিক) উদ্যোক্তাদের জন্য ই-কমার্স প্লাটফর্ম তৈরিতে সহায়তা, ডিজিটাল দক্ষতা বৃদ্ধি এবং প্রয়োজনীয় মার্কেট লিংকেজ সহায়তা দিবে এটুআই।

এছাড়াও ৬৪ জেলায় বিসিকের ডিসপ্লে সেন্টার গুলোকে অনলাইন প্লাটফর্মের আওতায় আনাসহ পণ্য উৎপাদন এবং বিপণনে নিযুক্ত কর্মী, উদ্যোক্তা এবং সমবায় সমিতিগুলোর জন্য প্রশিক্ষণ বিষয়ক কারিগরি পরামর্শ দিবে এটুআই।