চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ইয়াসের প্রভাবে উপকূলের বহু বাঁধ ভেঙে শত শত গ্রাম প্লাবিত

ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের প্রভাবে দেশের উপকূলের বহু বাঁধ ভেঙে শত শত গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। লোকালয়ে পানি ঢুকে ভেঙেছে অসংখ্য বাড়িঘর গাছপালা।

চ্যানেল আই প্রতিনিধিদের পাঠানো খবরে তা জানা গেছে।

ওইসব এলাকায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে যোগাযোগ ব্যবস্থা। জোয়ারের পানিতে বিভিন্ন এলাকায় বেড়িবাঁধ ভেঙ্গে ফসল ও ঘেরের ব্যপক ক্ষতি হয়েছে। দুর্গত এলাকায় দেখা দিয়েছে খাদ্য সংকট।

ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের প্রভাবে উপকূলের নদীগুলোর পানি বিপৎসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। পূর্ণিমায় জোয়ারের তীব্রতায় অনেকস্থানে বেড়িবাঁধ ভেঙে লোকালয়ে পানি ঢুকে পড়েছে। ভেঙে পড়েছে অসংখ্য বাড়িঘর গাছপালা।

পটুয়াখালীতে ৮ থেকে ১০ ফুট উঁচু জোয়ারে অন্তত দুইশত গ্রামের মানুষ পানিবন্দি হয়েছে। ঘরবাড়ির ও ফসলের পাশাপাশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে যোগাযোগ ব্যবস্থা।

বিজ্ঞাপন

অস্বাভাবিক জোয়ারে নোয়াখালীর হাতিয়ার নিঝুমদ্বীপের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। পানিবন্দী হয়ে পড়েছে বনের কয়েক হাজার হরিণ। জোয়ারের পানিতে ভেসে গেছে পুকুরের মাছ, কাঁকড়া ও জমির ফসল।

ইয়াস এর প্রভাবে সাতক্ষীরার বিভিন্ন এলাকায় উপকূলীয় বাঁধ ভেঙে বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত হয়েছে। ইছামতি, কালিন্দি ও কাকশিয়ালি নদীতে ৫-৬ ফুট পানি বৃদ্ধি পেয়ে কালিগঞ্জ, দবহাটা, শ্যামনগর ও আশাশুনি উপজেলার কয়েকশ গ্রাম প্লাবিত হয়েছে।

ঝড়ের কবলে পড়ে বিভিন্ন স্থানে হতাহতের ঘটনাও ঘটেছে। ভোলার লালমোহনে গাছচাপায় কৃষক আবু তাহেরের মৃত্যু হয়েছে। ঝিনাইদহে নারী ও শিশুসহ আহত হয়েছেন ৩ জন।

বরগুনার তিনটি নদীর পানি বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। পানিবন্দি হয়ে পড়েছে উপকূলের হাজারো মানুষ। ভেসে গেছে পুকুর, মাছের ঘের ও ফসলের ক্ষেত।

কঁচা ও বলেশ্বর নদীর পানি অস্বাভাবিক বৃদ্ধি পাওয়ায় বেড়িবাঁধ ভেঙে পিরোজপুরের ইন্দুরকানী ও মঠবাড়িয়া উপজেলার প্রায় ৫০ গ্রাম প্লাবিত হয়েছে।

পদ্মায় ঢেউয়ের তোড়ে মুন্সিগঞ্জের শিমুলিয়া দুই নম্বর ফেরিঘাটের পন্টুন দুই ভাগ হয়ে নদীতে ভেসে গেছে।

বিজ্ঞাপন