চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ইয়ামাহার এক হাজার সিসি’র বাইক বাংলাদেশে

বাংলাদেশের বাইকপ্রেমীদের কাছে ইয়ামাহা অত্যন্ত জনপ্রিয় একটি ব্র্যান্ড। এই ব্র্যান্ডের আরওয়ানএম হচ্ছে প্যাশনেট বাইকারদের কাছে ড্রিম বাইক। এছাড়া মোটোজিপি, ডাব্লিউএসবিকে এর মতো মোটরসাইকেল রেসিং এর আন্তর্জাতিক আসর এখন বাংলাদেশের বাইকারদের কাছে তুমুল জনপ্রিয়।

সেই জনপ্রিয়তা এবং বাইকারদের চাহিদাকে মাথায় রেখেই ইয়ামাহা জাপান এক হাজার সিসি’র বাইকটি বাংলাদেশে তাদের টেকনিক্যাল কোলাবোরেটেড পার্টনার এসিআই মোটরসকে সম্প্রতি উপহার হিসাবে পাঠিয়েছে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশে এত উচ্চ সিসির মোটরসাইকেল এর অনুমোদন না থাকায় বাইকটি শুধুমাত্র প্রদর্শনীর জন্য ব্যবহার করা হবে।

বিজ্ঞাপন

বিগত ৭ দশক ধরে মটোজিপি, ডাব্লিউএসবিকে ইত্যাদি রেসিং ট্র্যাকে আলোড়ন তোলা ইয়ামাহা এমওয়ান এর কনসেপ্টে তৈরি ইয়ামাহা YZF-R1M। এতে রয়েছে কার্বনের  তৈরি বডি কাউল,  ইলেকট্রনিক কন্ট্রোল টেকনোলজি এবং ইলেকট্রনিক রেসিং সাসপেনশন। ব্যবহৃত হয়েছে নতুন Öhlins NPX গ্যাস ফোর্ক।

বাইকটির ফোর স্ট্রোক লিকুইড কুলড ডিওএইচসি ইঞ্জিনে রয়েছে ফরওয়ার্ড-ইনক্লাইন্ড প্যারালাল ৪-সিলিন্ডার, ৪-ভালভ। বাইকটির কম্প্রেসর রেসিও ১৩.০:১, ওভারঅল হাইট ১১৫০ মিমি, ডিসপ্লেসমেন্ট ৯৯৮ সিসি। ক্লাচ টাইপ-ওয়েট, মাল্টিপল ডিস্ক এবং ইলেকট্রিক স্টার্ট সিস্টেম। বাইকটির ফুয়েল কনজামশন- ৭.২ লিটার /১০০ কি.মি.।

প্যাশনেট বাইকারদের মধ্যে খুব কমই আছেন যারা সুপারবাইক ভালোবাসেন না। টিভি পর্দায় বা রেসিং ট্র্যাকে দেখা সুপারবাইক সামনা-সামনি দেখতে কার না ইচ্ছে করে। ইয়ামাহা YZF-R1M তেমনই একটি সুপার স্পোর্টসবাইক। যা অনেক বাইকারেরই স্বপ্নের বাইক।

বিজ্ঞাপন