চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

নির্বাচনী প্রচারণার সময় কমাতে ইসির নির্দেশ পক্ষপাতদুষ্ট: মমতা

‘মোদিকে সভা শেষ করার সুবিধা দিয়েছে ইসি’

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী নির্বাচন কমিশনের প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেছেন: সভা শেষ করতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে সময় দিয়েছে নির্বাচন কমিশন।

বিজ্ঞাপন

নির্ধারিত সময়ের আগেই বৃহস্পতিবার রাত ১০টার মধ্যে প্রচারণা শেষ করার নির্দেশনার পরিপ্রেক্ষিতে নির্বাচন কমিশন মমতা ব্যানার্জীর তোপের মুখে পড়ে বলে হিন্দুস্থান টাইমস জানিয়েছে।

মমতা ব্যানার্জী বলেন, নির্বাচন কমিশনের সিদ্ধান্ত অশোভন, অনৈতিক এবং রাজনৈতিক পক্ষপাতদুষ্ট। কেন প্রচারণা বন্ধের জন্য নির্বাচন কমিশন ২৪ ঘণ্টা অপেক্ষা করবে? এর মানে বৃহস্পতিবার রাতে প্রচারণার সময় শেষ হওয়ার আগ পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী মোদিকে তার দুটি নির্বাচনী প্রচারণা শেষ করার সময় দেয়া হলো।

বিবিসি জানিয়েছে, ভারতের প্রধান নির্বাচন কমিশনার সুনীল অরোরার নেতৃত্বে কমিশন বুধবার সিদ্ধান্ত নিয়েছে, আগামিকাল (বৃহস্পতিবার) রাত ১০টার মধ্যেই সব রাজনৈতিক দলকে পশ্চিমবঙ্গে নির্বাচনী প্রচারণা শেষ করতে হবে।

এ রাজ্যে সপ্তম তথা শেষ দফার ভোট অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে আগামী রোববার। সেদিন রাজধানী কলকাতা ও তার আশেপাশের আসনগুলোতে ভোটগ্রহণ হবে। এর জন্য প্রচারণা চলার কথা ছিল শুক্রবার বিকাল পর্যন্ত।

অন্যদিকে প্রচারণার সময় শেষ করার নির্দেশনা দেয়ার পাশাপাশি ‘নির্বাচনী প্রক্রিয়ায় হস্তক্ষেপে’র গুরুতর অভিযোগ এনে পশ্চিমবঙ্গের স্বরাষ্ট্র সচিব অত্রি ভট্টাচার্যকেও দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দিয়েছে নির্বাচন কমিশন।

বিজ্ঞাপন

পশ্চিমবঙ্গে রাজ্য পুলিশের অতিরিক্ত ডিরেক্টর জেনারেল (সিআইডি) রাজীব কুমারকেও দায়িত্ব থেকে ছুটি দেয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার মধ্যে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে গিয়ে তাকে রিপোর্ট করতে বলা হয়েছে।

আবার কলকাতায় বিজেপি সভাপতি অমিত শাহের রোড শো’তে হামলার পর ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের ভাস্কর্য ভাঙার ঘটনায় পরস্পরকে দুষছে বিজেপি ও তৃণমূল কংগ্রেস।

এ ঘটনাকে কেন্দ্র করেই তুমুল উত্তেজনা বিরাজ করছে কলকাতায়। এরই মধ্যে অমিত শাহ সহ বেশ কয়েকজনকে আসামি করে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

বুধবার অমিত শাহ সংবাদ সম্মেলন করে বলেন, মঙ্গলবারের রোড শো’তে হামলাএবং ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের একটি ভাস্কর্য গুঁড়িয়ে দেয় তৃণমূল সমর্থকরা। এমন বিশৃঙ্খলা ঘটিয়ে লোকসভা নির্বাচনে একটা ইমেজ তৈরি করতে চেয়েছেন মমতা ব্যানার্জি।

ঘটনার সঠিক তদন্তের জন্য নয়াদিল্লিতে বিজেপি নেতাকর্মীরা মানববন্ধন করেন। কলকাতার ঘটনার পেছনে তৃণমূলের হাত রয়েছে বলে দাবি করা হয় ওই মানববন্ধন থেকে।

Bellow Post-Green View