চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

দুই রাষ্ট্রই ইসরায়েল-ফিলিস্তিন সংঘর্ষের একমাত্র সমাধান: বাইডেন

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন গাজা পুনর্গঠনে বিভিন্ন প্রচেষ্টা সংগঠিত করতে সহায়তা করবেন বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। তিনি বলেছেন: ইসরায়েলের পাশাপাশি ফিলিস্তিন রাষ্ট্র গঠনই এই দ্বন্দ্বের একমাত্র সমাধান।

বাইডেন বলেন: তিনি ইসরায়েলিদের জেরুজালেম শহরে আন্ত:সাম্প্রদায়িক লড়াই বন্ধ করার আহ্বান জানিয়েছেন।

তবে তিনি যোগ করেন: ইসরায়েলের নিরাপত্তার প্রতিশ্রুতির কোনো ব্যত্যয় ঘটবে না। আর যতক্ষণ না এই অঞ্চল ‘স্পষ্টত’ ইসরায়েলের অস্তিত্ব স্বীকার না করবে ততক্ষণ পর্যন্ত ‘কোনও শান্তি থাকবে না’।

বিজ্ঞাপন

দুই রাষ্ট্র সমাধানের ধারণাটি হলো– ইসরায়েলের পাশাপাশি সার্বভৌম ফিলিস্তিন রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা এবং জেরুজালেম হবে দুই রাষ্ট্রের রাজধানী। ইসরায়েল-ফিলিস্তিন সংঘাতের অবসানে দুই রাষ্ট্র সমাধানের ধারণা কয়েক দশক ধরে আন্তর্জাতিক কূটনীতিতে আলোচিত হয়ে আসছে।

এর আগে পুরোপুরি ইসরায়েলপন্থী হওয়ায় এবং ফিলিস্তিনকে উপেক্ষা করায় প্রবলভাবে সমালোচিত হয় সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের পলিসি। ট্রাম্পের পরামর্শক ও জামাতা জারেড কুশনারের ভাবনার মধ্যযুগীয় শান্তি পরিকল্পনাটি দ্বি-রাষ্ট্রীয় সমাধানের ব্যবস্থা হিসাবে বিল করা হয়েছিল। তবে সেই নীলনকশাতে ফিলিস্তিনি রাষ্ট্রের সার্বভৌমত্ব খুবই সীমিত করা ছিলো এবং ইসরায়েল সেই রাষ্ট্রের নিরাপত্তার দেখভাল করবে বলা হয়েছিল।

ফিলিস্তিনের নেতারা সেই পরিকল্পনা বাতিল করে দেন। শুক্রবার বাইডেন আবার একটি পরিপূর্ণ বিকশিত দ্বি-রাষ্ট্র সমাধানের উপর জোর দেন।

বাইডেন বলেন: ইসরায়েলের নিরাপত্তা নিয়ে আমার প্রতিশ্রুতির কোনো পরিবর্তন হবে না। কিন্তু আমি বলতে চাই পরিবর্তন আনতে হবে। পরিবর্তনটি হলো আমাদের এখন দুই রাষ্ট্র সমাধান দরকার। আর এটাই একমাত্র সমাধান।

বিজ্ঞাপন