চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ইসরায়েলকে ইহুদি রাষ্ট্র ঘোষণা করে পার্লামেন্টে বিল পাস

ইসরায়েলকে ইহুদি রাষ্ট্র ঘোষণা করে পার্লামেন্টে বিল পাস হয়েছে। একইসাথে হিব্রুকে রাষ্ট্রভাষার স্বীকৃতিও দিয়েছে ইসরাইলী পার্লামেন্ট। এর ফলে বিশ্বের সকল ইহুদি ইসরায়েলে বিনা বাধায় বসতি স্থাপন করতে পারবেন।

বিলটি পাস হওয়ার সময় আরব এমপিরা পার্লামেন্টে এর বিরোধিতা করেন। এমনকি যুক্তরাষ্ট্রের ইহুদি সংগঠনও বিলটির বিরোধিতা করেছে।

বিজ্ঞাপন

পার্লামেন্টে বিতর্কিত বিলটির পক্ষে ভোট দেন ৬২ জন সদস্য, বিপক্ষে ছিলেন ৫৫ জন। আর ভোটদানে বিরত থাকেন দুই এমপি। ইসরাইলী প্রেসিডেন্ট এবং অ্যাটর্নি জেনারেলও এর বিপক্ষে।

জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানীর স্বীকৃতি দেয়ার কথা উল্লেখ থাকা বিলটি পাস হওয়ার হলেও ইসরায়েলের বিদ্যমান বহুমাত্রিকতার চরিত্র পাল্টাবে না বলে উল্লেখ করেন প্রধানমন্ত্রী বেনইয়ামিন নেতানিয়াহু।

বিজ্ঞাপন

এই দিনকে বিশ্বের ইহুদিদের ‘আত্ম-পরিচয় নির্ধারণের দিন’ হিসেবে উল্লেখ করেছেন ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু।

ইহুদি সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশ হলেও ইসরাইলে বিশ শতাংশ মুসলিমের বসবাস। পার্লামেন্টেও বেশ কিছু আরব এমপি রয়েছেন। ৭০ বছর ধরে সব ধর্মের মানুষকে কাগজে-কলমে সমান অধিকার দেয়া দেশটির পার্লামেন্টে বিলটি পাস হওয়ার সময় কালো পতাকা প্রদর্শন করে এর বিরোধিতা করেন আরব এমপিরা।

শুধু আরব এমপিদের বিরোধিতা নয়, জেরুজালেম বিষয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্টের সাথে একাত্মতা প্রকাশের পর বিতর্কিত বিল পাস করায় বিশ্বব্যাপি সমালোচিত হচ্ছেন ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেনইয়ামিন নেতানিয়াহু। এমনকি যুক্তরাষ্ট্রের ইহুদি সংগঠনও বিলটির বিরোধিতা করেছে। তেল আবিবে এর বিরুদ্ধে বিক্ষোভ করেছে ইসরায়েলীরা।

উল্লেখ্য, ইসরায়েলের কোন সংবিধান নেই। দেশটিতে ধারাবাহিকভাবে পাশ করানো কয়েকটি মৌলিক আইনের রয়েছে সাংবিধানিক মূল্য। এই জাতি রাষ্ট্র আইনটি হলো দেশটির ১৪তম মৌলিক আইন।