চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ইফতেখারের ‘মুক্তি’ ছবিতে কায়েস আরজু

৭ ডিসেম্বর ‘মুক্তি’র মহরত, এরপরেই শুরু হবে শুটিং…

ইফতেখার চৌধুরীর ঘোষণা দেয়া নতুন ছবি ‘মুক্তি’তে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন এ প্রজন্মের নায়ক কায়েস আরজু। বৃহস্পতিবার রাতে ছবিটিতে তিনি চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন।

নতুন এ ছবির গল্পকেই ‘হিরো’ মনে হয়েছে বলে আরজু ছবিটি করতে যাচ্ছেন বলে জানান। ‘মুক্তি’ পরিচালনার পাশাপাশি প্রথমবার প্রযোজনা করতে যাচ্ছেন ইফতেখার চৌধুরী। প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের নাম আইসি ফিল্ম।

বিজ্ঞাপন

‘মুক্তি’ ছবির নাম ভূমিকায় অভিনয় করছেন রাজ রিপা। গেল কয়েক মাস ধরে এ নবীন মুক্তির জন্য ফাইট শিখেছেন, তীর চালানো শিখেছেন এমনকি সাইকেল-বাইক চালানো শিখেছেন। রিপা ছাড়াও এ ছবিতে থাকবেন আরও সাতজন অভিনেতা।

আরজু কায়েস তাদেরই একজন। ‘মুক্তি’র আগে তার ৯ টি ছবি মুক্তি পেয়েছে। তিনি বলেন, আমার চরিত্র সাইকো ধাঁচের। এ ধরনের চরিত্রে আমি এবারই প্রথম কাজ করতে যাচ্ছি। ৫ থেকে ২০ জানুয়ারি পর্যন্ত এ ছবির জন্য শিডিউল দিয়েছি।

এর আগে মুনতাহিনা টয়ার সঙ্গে ইফতেখার চৌধুরীর ‘আঁচড়’ ছবি করার কথা ছিল কায়েস আরজুর। দুই বছর আগে আইসল্যান্ডে এ ছবির শুটিংয়ে যাওয়ার ঠিক আগের দিন শুটিং বাতিল হয়। দেশটিতে ‘স্নো ফল’ হওয়ায় শুটিং হয় বাতিল হয়।

আরজু বলেন, ১৪ দিনের ভিসা ছিল। কিন্তু ভিসার মেয়াদ শেষ হওয়ার পরে আর শুটিং হয়নি। তবে ‘মুক্তি’ ছবিতে কাজ করতে যাচ্ছি। এই ছবিতে বেশ কয়েকজন গুরুত্বপূর্ণ শিল্পীর সমন্বয়  থাকলেও আমার চরিত্রটি ভাইটাল। ইফতেখার ভাই আধুনিক মেকার। ভালো কিছু হবে।

১৬ আগস্ট ইস্কাটনের একটি রেস্তোরাঁয় সংবাদ সম্মেলন ডেকে ‘মুক্তি’ ছবির নাম ঘোষণা করেন ইফতেখার চৌধুরী। সেখানে রাজ রিপাকে তিনি ‘মুক্তি’র কেন্দ্রীয় চরিত্র মুক্তি হিসেবে পরিচিত করান। আরও জানান ছবিতে থাকবে সাতজন এ প্রজন্মের অভিনেতা।

পরিচালক তখন জানিয়েছিলেন, নোয়াখালী জেলার একটি পরিচিত জনপদের এক দরিদ্র ও অতি সাধারণ পরিবারের মেয়ে মুক্তি কীভাবে সময়ের প্রয়োজনে অনন্য সাধারণ হয়ে ওঠেন, তারই এক লোমহর্ষক চিত্রায়ণ থাকবে মুক্তি ছবিতে।

ইফতেখার চৌধুরী বলেন, সাত ডিসেম্বর রাজধানীর একটি হোটেলে মুক্তির মহরত অনুষ্ঠিত হবে। সেখানে অন্যান্য শিল্পীদের পরিচয় করিয়ে দেয়া হবে। তিনি বলেন, করোনার প্রকোপ না থাকলে আরও আগেই ছবির শুটিং শুরু হতো। তবে চলতি মাসের শেষে শুটিং শুরু করতে হতে পারে। সেভাবেই প্রস্তুতি নিচ্ছি। যেহেতু এটি আমার প্রযোজিত প্রথম ছবি তাই টান অন্যরকম।