চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ইথিওপিয়ায় অভ্যুত্থানের নেতাকে গুলি করে হত্যা

ইথিওপিয়ার রাজধানী আদ্দিস আবাবায় দেহরক্ষীর গুলিতে দেশটির সেনাপ্রধানের নিহত হওয়ার প্রায় কাছাকাছি সময়ে অভুত্থানের নেতৃত্বদানকারী সেনাকর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আসামিনিউ সিজেকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে।

দেশটির আমহারা প্রদেশের রাজধানীর সীমান্ত এলাকায় গুলি করে হত্যা করা হয়েছে বলে জানিয়েছে বিবিসি।

প্রধানমন্ত্রী আবি আহমেদের অফিস জানায়, আমহারার নিরাপত্তা প্রধান ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আসামিনিউ সিজে ওই অভ্যুত্থানের নেতৃত্ব দেন।

এই মাসেই আমহারার জনগণকে অস্ত্র হাতে নিয়ে প্রতিরোধ করতে আহ্বান জানান তিনি। সেই ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে।

ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আসামিনিউ সিজে জনগণের চাপের মুখে গত বছর জেল থেকে মুক্তি পান। তিনি সেনাবাহিনীর উচ্চপদের কর্মকর্তা ছিলেন। এর আগেও তিনি অভ্যুত্থানের করার কারণে ৯ বছর জেলে ছিলেন।

ওই অভ্যুত্থানে সেনাপ্রধানকে হত্যা করা দেহরক্ষীসহ এখন পর্যন্ত ছয়জন নিহত হয়েছেন। নিহতদের স্মরণে দেশটিতে পতাকা অর্ধনমিত রেখে একদিনের শোক ঘোষণা করেছে দেশটির সরকার।

দেশটির প্রধানমন্ত্রী আবি আহমেদ শনিবার হওয়া এ হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়ে বলেন, সকল শয়তানি শক্তি যারা ইথিওপিয়াকে পৃথক করতে চায় তাদের বিরুদ্ধে ইথিওপিয়াকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।

বিজ্ঞাপন

ওই হামলায় নিহত সেনাপ্রধান ও আমহারাতের গভর্নর আমবাচিউ মেকোনেন দেশটির প্রধানমন্ত্রীর ঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিত ছিলেন। গর্ভনর আমবাচিউ মেকোনের এর সিনিয়র উপদেষ্টা এজেজ ওয়াসিকে হত্যা করা হয়েছে এবং আঞ্চলিক অ্যাটর্নি জেনারেল আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন সংবাদ মাধ্যম বিবিসি।

ইথিওপিয়ার উত্তরাঞ্চলীয় আমহারা এলাকার প্রশাসনের বিরুদ্ধে একটি অভ্যুত্থানের চেষ্টা ঠেকানোর কারণে জেনারেল মেকোনেন ও তার আরেক ঘনিষ্ঠ সহযোগী কর্মকর্তা জেনারেল গেজাই আবেরাকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী আবি আহমেদ।

ঘটনার পর লাকে আয়ালিউকে ভারপ্রাপ্ত গভর্নর হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়েছে।

ইথিওপিয়ার রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমগুলো জানিয়েছে, অভ্যুত্থানের পর আমহারাসহ দেশটির রাজধানি আদ্দিস আবাবায় ব্যাপক নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে। সারা দেশের ইন্টারনেট সেবা বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

আদ্দিস আবাবায় মার্কিন নাগরিকদের নিরাপদে অবস্থান নিতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

হামলাকারী দেহরক্ষীকে আটক করে পুলিশ হেফাজতে নেয়া হয়েছে বলে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে জানানো হয়েছে। সম্প্রতি দেশটির আমহারাসহ বেশ কয়েক জায়গায় আদিবাসীদের সহিংসতা ছড়িয়ে পড়ে।

আফ্রিকার সবচেয়ে প্রাচীন স্বাধীনদেশ ইথিওপিয়া। ওই মহাদেশে নাইজেরিয়ার পর দ্বিতীয় জনপ্রিয় দেশ ইথিওপিয়া। এ দেশে প্রায় ৮০টির বেশি আদিবাসীর বসবাস।

বিজ্ঞাপন