চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ইতালি-স্পেন সেমিফাইনাল: ইতিহাস কী বলছে?

ইউরোয় মাঠে গড়ানোর অপেক্ষায় সেমিফাইনালের লড়াই। সেরা চারের প্রথম ম্যাচে মুখোমুখি হবে দুই সাবেক বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ইতালি ও স্পেন। দুদলই শিরোপা প্রত্যাশী। আসরে আজ্জুরিরা ছুটছে দুর্দান্ত গতিময় ফুটবল দিয়ে। স্প্যানিশরা সেখানে টিকিটাকায় মোহাবিষ্ট করে রাখছে ফুটবলপ্রেমীদের।

লন্ডনের ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে মঙ্গলবার বাংলাদেশ সময় রাত ১টায় ইউরোর প্রথম সেমিতে মাঠে নামবে রবের্তো মানচিনির ইতালি ও লুইস এনরিকের স্পেন। বিজয়ী দল চলে যাবে শিরোপার মঞ্চে।

দল দুটির সেমিতে নামার আগে দেখে নেয়া যাক মুখোমুখি লড়াইয়ের ইতিহাস, সাফল্যের পরিসংখ্যান ও সুখস্মৃতির জায়গাগুলো।

ইতালি ও স্পেন: দুদেশেরই আছে সমৃদ্ধ ফুটবল ঐতিহ্য। সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে দুদল মুখোমুখি হয়েছে ৩৩ বার। জয়ের পাল্লাটা অবশ্য স্প্যানিশদের দিকেই ভারি, তাদের ১২ জয়ের পিঠে ইতালিয়ানদের জয় ৯ বার, ১২ ম্যাচে দেখা মিলেছে ড্রয়ের।

দুদল সবশেষ মুখোমুখি হয়েছিল ২০১৭ সালের সেপ্টেম্বরে, ইতালিকে ৩-০তে হারিয়েছিল স্পেন, সেটি ২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপের কোয়ালিফায়ারের খেলা ছিল। ওই আসরে বিশ্বমঞ্চে জায়গা করে নিতে পারেনি ইতালি। তিন বছর পর ফের দেখা হচ্ছে। ইউরোপের মুকুট জয়ের মতো মঞ্চের সেমিফাইনালে।

চলতি আসরসহ ইতালি এপর্যন্ত ১০বার অংশ নিয়েছে ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে। তিনবার ফাইনালে গেছে তারা। ১৯৬৮ আসরে প্রথমবার অংশ নিয়েই শিরোপা ঘরে তুলেছিল, তখনকার যুগোস্লাভিয়াকে হারিয়ে। বাকি দুবার, ২০০০ সালে নেদারল্যান্ডস আসরে ফ্রান্সের কাছে ও ২০১২ সালে ইউক্রেন আসরে স্পেনের কাছে হেরে হয়েছে রানার্সআপ।

বিজ্ঞাপন

চলতি আসরসহ স্পেনও এপর্যন্ত ১০বার অংশ নিয়েছে ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে। তিনবার ট্রফি জিতেছে। ১৯৬৪ সালের ইউরোপিয়ান নেশনস কাপ নামের আসরে তখনকার সোভিয়েত ইউনিয়নকে হারিয়ে টাইটেল জেতে স্প্যানিশরা।

পরে ২০০৮ সালে অস্ট্রেলিয়া-সুইজারল্যান্ড আসরে জার্মানিকে হারিয়ে জেতে দ্বিতীয় শিরোপা। ১৯৮৪ আসরের ফ্রান্সের পর স্পেনই প্রথম দল যারা গ্রুপপর্বের সব ম্যাচ জিতেছিল। ১৯৯৬ সালের জার্মানির পর প্রথম দল যারা অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল।

স্পেন তৃতীয় শিরোপাটি জেতে ২০১২ সালে। পোল্যান্ড-ইউক্রেনের যৌথ আয়োজনের আসরে, ইতালিকে ৪-০ গোলে উড়িয়ে শিরোপা উঁচিয়ে ধরে স্প্যানিশরা। সেইসঙ্গে প্রথম দেশ হিসেবে টানা দ্বিতীয়বার ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপ জয়ের কীর্তি গড়ে। গড়ে ইউরো ২০০৮, বিশ্বকাপ ২০১০ ও ইউরো ২০১২ জয়ের মতো টানা তিনটি মেজর টুর্নামেন্ট উঁচিয়ে ধরার কীর্তি।

মানচিনির ইতালি টুর্নামেন্টের অন্যতম ধারাবাহিক দল, জিতেছে টানা ১৩ ম্যাচে। টানা ৩২ ম্যাচে অপরাজিত থাকার রেকর্ড গড়েছে কোয়ার্টারে জয় তুলে। অন্যদিকে বাজে শুরুর পর ঘুরে দাঁড়িয়েছে স্পেন, নিজেদের শেষ তিন ম্যাচে করেছে ১১ গোল।

বিশ্বকাপ ও ইউরো মিলিয়ে সর্বোচ্চ ৯বার বড় আসরে মুখোমুখি হয়েছে ইতালি ও স্পেন, যা ইউরোপের দলগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশিবার বড় টুর্নামেন্টে প্রতিপক্ষ হওয়ার রেকর্ড। ইতালি ইতিহাসের একমাত্র দল যারা কোনো ম্যাচ না হেরেই সেমি পর্যন্ত এসেছে এবার।

মেজর টুর্নামেন্টের সেমিতে, ইউরো ও বিশ্বকাপ মিলিয়ে সবচেয়ে বেশিবার খেলেছে জার্মানি, ২০বার। তারপরেই আছে ইতালি, ১২বার সেমির স্বাদ পেয়েছে তারা। এসব ইতিহাস, ঐতিহ্য, পরিসংখ্যান ইঙ্গিত দিচ্ছে রোমাঞ্চকর এক লড়াইয়েরই।

বিজ্ঞাপন