চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ইটালিয়ান ক্রীড়ামন্ত্রী-রোনালদোর কথার কাদা ছোড়াছুড়ি

করোনাভাইরাস প্রটোকল ভেঙে ইটালিতে প্রবেশ করেছেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো, জুভেন্টাস ফরোয়ার্ডকে বৃহস্পতিবার এভাবেই সমালোচনায় বিদ্ধ করেছিলেন দেশটির ক্রীড়ামন্ত্রী ভিনসেঞ্জো স্পাদাফোরা। এর বিপরীতে জবাব দিতে দেরি করেননি সিআর সেভেন। পাল্টা জবাবে বলেছেন: স্পাদাফোরা যা বলছেন তার সবই ভুল।

উয়েফা ন্যাশনস কাপে স্পেন ও ফ্রান্সের বিপক্ষে ম্যাচ খেলার পর সুইডেনের মুখোমুখি হবার আগে করোনা টেস্টে পজেটিভ হন পর্তুগাল অধিনায়ক রোনালদো। সেই ম্যাচে আর তাই নামা হয়নি আর। অপেক্ষাতেও থাকেননি। ২৮ নভেম্বর বার্সার বিপক্ষে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ম্যাচ আছে, সেই ম্যাচে যেন নামতে পারেন সেই উদ্দেশে ভাড়া করা বিমানে উঠে ইটালিতে নেমে সোজা কোয়ারেন্টাইনে চলে গেছেন তিনি। একাকি চলছে নিজের মত অনুশীলন।

বিজ্ঞাপন

তবে করোনা নিয়ে পর্তুগাল থেকে রোনালদোর ইটালিতে ফেরাটা পছন্দ হয়নি দেশটির ক্রীড়ামন্ত্রী স্পাদাফোরার। তার অভিযোগ ছিলো স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অনুমতি না নিয়ে ইটালিতে প্রবেশ করেছেন পর্তুগিজ তারকা।

বিজ্ঞাপন

জবাব দিতেও দেরি করেননি রোনালদো। ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করা এক ভিডিওতে স্পাদাফোরার অভিযোগকে মিথ্যা বলে উড়িয়ে দিয়েছেন জুভেন্টাস তারকা।

বিজ্ঞাপন

‘ইটালিতে এক ভদ্রলোক বলেছেন যে আমি কোনো নিয়মের অমান্য করিনি… আমি তার নাম বলবো না। যা বলা হয়েছে তার সম্পূর্ণ মিথ্যা।’

‘আমি প্রোটোকল মেনেই এসেছি এবং মান্য করতে থাকবো। আমার ভাবনা চিন্তা পরিষ্কার… আমি যা করেছি তার সবকিছুরই অনুমতি ছিলো।’

‘বলা হচ্ছে আমি নাকি নিয়ম ভেঙ্গেছি…সব মিথ্যা। আমি সব ঠিক নিয়মই মেনেছি। ঠিক মতো দল ছেড়েছি, এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে চড়েছি, তুরিনে এসেছি…এবং কারও সংস্পর্শেও আসিনি।’

রোনালদোর এই ভিডিওর পরেই ইটালিয়ান নিউজ এজেন্সি আনসাতে পাল্টা বক্তব্য দিয়েছেন স্পাদাফোরা, ‘কিছু কিছু খেলোয়াড়ের গুণ-মান তাদের অহংকার, অশ্রদ্ধাবোধ ও ক্রমান্বয় মিথ্যার কাছে মলিন হয়ে যায়।’

‘জবাবে আমি শুধু বলবো আপনি যত বেশি খ্যাতি পাবেন তখন কোনো কথা বলার চিন্তা-ভাবনা করবেন আর উদাহরণ তৈরি করবেন।’