চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে পটুয়াখালী ও বরিশালে সংঘর্ষ

ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে পটুয়াখালী ও বরিশালে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এসময় গুলি ও বোমা বিস্ফোরণের ঘটনায় উল্লেখযোগ্য সংখ্যক মানুষ আহত হয়েছেন।

পটুয়াখালী
পটুয়াখালীর বাউফলে দুই চেয়ারম্যান প্রার্থী আলাউদ্দিন টিটু (নৌকা) ও মহিউদ্দিন লাভলু (চশমা কর্মী সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে অন্তত ১০ জন আহত হয়েছে। এ সময় তিন রাউন্ড গুলি ও কয়েকটি বোমা বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে।

বিজ্ঞাপন

এ ঘটনায় গুরুতর আহত রাব্বি (৩০) ও রাশমন (৪০) নামের দুই যুবককে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

সোমবার সকালে কেশবপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ২নং ওর্য়াডের হাইস্কুল কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে। এঘটনায় ওই কেন্দ্রের ভোট গ্রহণ বন্ধ ঘোষণা করে প্রিজাইডিং অফিসার। পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসলে দশটার দিকে ভোটগ্রহণ ফের চালু করা হয়।

তাছাড়া ধুলিয়া ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ডের চাদকাঠী মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ইউপি সদস্য প্রার্থী জামাল হোসেন ও নেছারের গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে অন্তত ১০ জন আহত হয়েছে।

বাউফল থানার ওসি আল মামুন জানান, বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

বরিশাল
বরিশালের গৌরনদী উপজেলার খাঞ্জাপুর ইউনিয়নের কমলাপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে বোমা হামলায় মৌজে আলী মৃধা নামে একজন নিহত হয়েছেন। এই হামলায় আরও কয়েকজন আহত হন।

বেলা ২টার দিকে এই ঘটনা ঘটে।

তাছাড়া বরিশালের হিজলা উপজেলার হরিনাথপুর ইউনিয়নের সরকারি গঙ্গাপুর প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে সমর্থকের বিশৃঙ্খলা ঠেকাতে পুলিশ ৫ রাউন্ড গুলিবর্ষণ করে। এ সময় কিছুক্ষণ ভোটগ্রহণ বন্ধ ছিল।

বিজ্ঞাপন