চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ইউনাইটেড হাসপাতালে আগুন, ৫ করোনা রোগীর মৃত্যু

রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালের করোনা ইউনিটে অগ্নিকাণ্ডে ৫ জন করোনা আক্রান্ত রোগীর মৃত্যু হয়েছে।

বুধবার রাতে সেখানে আগুন লাগার পর ফায়ার সার্ভিসের ৩টি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করে।

বিজ্ঞাপন

পরে ফায়ার সার্ভিসের উদ্ধার কর্মীরা হাসপাতালের করোনা ইউনিট থেকে ৫ জনের মৃতদেহ উদ্ধার করে।

বিজ্ঞাপন

মারা যাওয়া রোগীরা হলেন, রিয়াজুল আলম (৪৫), খোদেজা বেগম (৭০), ভেরুন এন্থনি পল (৭৪), মো. মনির হোসেন (৭৫), মাে. মাহাবুব (৫০)

ফায়ার সার্ভিস সদর দফতরের ডিউটি অফিসার কামরুল ইসলাম চ্যানেল আই অনলাইনকে জানান, বুধবার রাত ৯টা ৫৫ মিনিটে আগুন লাগার পর বারিধারা ফায়ার স্টেশন তা নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে। ফায়ার সার্ভিসের তিনটি ইউনিট সেখানে আছে। করোনা ইউনিটে থাকা পাঁচ জন মারা গেছেন।

বিজ্ঞাপন

ইউনাইটেড হাসপাতালের চিফ অব কমিউনিকেশন ডা. সাগুফা আনোয়ার বলেন, ‘আমরাও পাঁচজনের খবর পেয়েছি। মূল ভবনের বাইরে শর্ট সার্কিট থেকে আগুন লাগে। ১০ থেকে ১২ মিনিটের মধ্যেই আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। সবকিছু মিলিয়ে নিয়ন্ত্রণে আছে পরিস্থিতি। কোনও ধরনের ধোঁয়া হাসপাতালের ভেতরে যায়নি।’

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বলছে, মূল ভবনের বাইরে কোভিড আইসােলেশন ইউনিটে সম্ভবত বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিটের মাধ্যমে অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয় এবং কয়েক মিনিটের মধ্যে আগুন আইসােলেশন ইউনিটের সর্বত্র ছড়িয়ে পড়ে।

সেই সময় আবহাওয়া খারাপ ছিল ও বিদ্যুৎ চমকাচ্ছিল। বাতাসের তীব্রতায় আগুন প্রচণ্ড দ্রুততার সাথে ছড়িয়ে পড়ার ফলে দুর্ভাগ্যজনকভাবে এখানে ভর্তি ৫ জন রোগীকে বাইরে বের করে আনা সম্ভব হয়নি এবং ভিতরে থাকা এই ৫ জন রোগী মৃত্যুবরণ করেন।

ফায়ার সার্ভিস বলছে, ধারণা করা হচ্ছে, হাসপাতালের করোনা ইউনিটের এসির বিস্ফোরণ থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে।

পুলিশের গুলশান বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) সুদীপ চক্রবর্তী বলেন, হাসপাতালের পাশে অস্থায়ী করোনা ইউনিটে আগুন লেগেছিল। রাত সাড়ে ১০ টার দিকে তিনি জানান যে, ঘটনাস্থল থেকে ৫ জনের মৃতদেহ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিস।