চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

ইইউ দেশগুলোতে অক্সফোর্ডের ৮০ শতাংশ ভ্যাকসিন অব্যবহৃত

ইউরোপীয় ইউনিয়ভুক্ত দেশগুলোতে সরবরাহ করা অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার ভ্যাকসিনের ৮০ শতাংশই অব্যবহৃত রয়ে গেছে বলে জানিয়েছে গণমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ান। ভ্যাকসিনটির প্রতি সদস্য দেশগুলোর নাগরিকদের অনাগ্রহের কথা স্বীকার করেছে জার্মানি।

অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার ভ্যাকসিনের প্রতি শুরু থেকেই কিছুটা অনাগ্রহী ইউরোপের বাসিন্দারা। এবার ব্রিটিশ গণমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ানের তদন্তে জানা গেছে এখনও পর্যন্ত ইইউভুক্ত দেশগুলোতে সরবরাহ করা অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিনের ৫ ভাগের ৪ ভাগ, অর্থাৎ ৮০ শতাংশই অব্যবহৃত অবস্থায় পড়ে আছে। ইউরোপীয় রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ সংস্থা ইসিডিসি ও অন্যান্য সূত্র থেকে জানা গেছে ভ্যাকসিনের ৬১ লাখের বেশি ডোজের মধ্যে সাড়ে ৪৮ লাখ ডোজই এখনও প্রয়োগ করা হয়নি।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

অ্যাস্ট্রাজেনেকার ভ্যাকসিন নিয়ে ইউরোপীয়দের অনাগ্রহের কথা স্বীকার করেছেন জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মেরকেল। জার্মান এক সংবাদপত্রকে দেয়া সাক্ষাৎকারে মেরকেল বলেছেন, ভ্যাকসিনটি নিয়ে প্রথম দিকে নেতিবাচক প্রচারণার ফল এটি। মেরকেল আরও বলেন, যেখানে ভ্যাকসিনের পর্যাপ্ত সরবরাহ পাওয়াই অনিশ্চিত, সেখানে ভ্যাকসিনের ব্র্যান্ড বেছে নেয়ার কোনো সুযোগই নেই।

করোনাভাইরাস রোধে আরও দু’টি নতুন ভ্যাকসিন অনুমোদন করেছে চীন। একটি ভ্যাকসিন বানাচ্ছে ক্যানসিনো বায়োলজিক্স নামের একটি প্রতিষ্ঠান। অপর ভ্যাকসিনটি তৈরি করবে সিনোফার্মের সহযোগী উহানের একটি ইনস্টিটিউট। এ নিয়ে নিজ দেশে উদ্ভাবিত মোট ৪টি ভ্যাকসিনকে অনুমোদন দিলো চীন।

করোকালীন বিধিনিষেধ শিথিল করছে ভূমধ্যসাগরের দ্বীপ রাষ্ট্র সাইপ্রাস। খুলে দেয়া হচ্ছে স্কুল ও জিমনেশিয়ামের মতো প্রতিষ্ঠানগুলো। বৃদ্ধাশ্রম ও নার্সিং হোমে থাকা বয়স্কদের মধ্যে যারা এরই মধ্যে করোনা ভ্যাকসিনের ২ ডোজ নিয়েছেন তাদের পরিবারের সাথে দেখা করার অনুমতি দিয়েছে সুইডেন। দরিদ্র দেশগুলোতে টিকার সরবরাহ নিশ্চিতে প্রয়োজনে ভ্যাকসিনের ওপর থেকে কিছু মেধাস্বত্ত্ব প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়েছে আফ্রিকান ইউনিয়ন। এতে করে ভ্যাকসিন তৈরিকারী প্রতিষ্ঠান ও গ্রহীতা- দু’ পক্ষই লাভবান হবে বলে আশা সংস্থাটির।