চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

আশার কথা ডেঙ্গু কমছে

গত কয়েক দিনে সারাদেশে ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা কমেছে বলে দাবি করছে সরকার। মূলত ঈদের পর থেকে হাসপাতালে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত নতুন রোগী ভর্তি কমেছে। তবে আজ সোমবারও সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত খুলনা, নেত্রকোণা, ফরিদপুর এবং পটুয়াখালীতে আক্রান্ত পাঁচ ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে বলে সংবাদ প্রকাশ করেছে একাধিক গণমাধ্যম।

এদিন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ইমার্জেন্সি অপারেশনস সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের সর্বশেষ তথ্যে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় ১ হাজার ৬১৫ জন নতুন ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। এর মধ্যে ঢাকার বিভিন্ন হাসপাতালে ৭৫৭ জন এবং ঢাকার বাইরে ৮৫৮ জন।

বিজ্ঞাপন

সব মিলিয়ে গত এক মাসের তুলনায় ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা কমেছে। বিশেষ করে রাজধানীতে ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা বেশি কমেছে। তবে এ নিয়ে কিছুটা আশঙ্কার কথা জানিয়ে চিকিৎসকরা বলছেন, আগামী ১৫ দিন না গেলে ডেঙ্গু পরিস্থিতি ঠিক কোনদিকে যাচ্ছে; সেটা নিশ্চিত করে বলা যাবে না।

বিজ্ঞাপন

আমরা যদি শুধু হাসপাতালে ভর্তির পরিসংখ্যানের ভিত্তিতে ডেঙ্গু আক্রান্তের নিম্নগতির কথা বলি, তাহলে হয়তো সেটা নিয়ে বিতর্ক থাকতে পারে। কেননা, হাসপাতালে শয্যা সংকটে অনেক রোগীকেই বাসায় রেখে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। স্বাভাবিকভাবেই তাদেরকে এই পরিসংখ্যানের বাইরে রাখা হয়েছে। তারপরও হাসপাতালে নতুন রোগী কম ভর্তি হচ্ছে; এটাও ডেঙ্গু মুক্তির আশা জাগানিয়া খবর।

আর আগামী ১৫ দিনের যে আশঙ্কার কথা চিকিৎসকরা বলছেন, আমরা মনে করি, সেটাও কোনো সমস্যা তৈরি করবে না। কারণ সারাদেশেই ডেঙ্গু নিয়ে সচেতনতা বেড়েছে। বেড়েছে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা অভিযানও। এক্ষেত্রে বিভিন্ন সংস্থা, সংগঠনের পাশাপাশি ব্যক্তি উদ্যোগও বেড়েছে। মোট কথা সমন্বিত প্রচেষ্টায় অগ্রগতি সন্তোষজনক।

এ জন্যই আমরা আশাবাদী আগামী দিনগুলোতে ডেঙ্গুর প্রকোপ ক্রমশও কমে আসবে। আমরা মনে করি, ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে এবারের মতো ভয়ংকর অভিজ্ঞতা আগামীতে যেন না হয়, সেদিকে নজর রাখতে হবে। আর সেটা শুধু বিশেষ সময়ে নয়, সারা বছরই ডেঙ্গু প্রতিরোধে প্রস্তুতি থাকতে হবে।

Bellow Post-Green View