চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘আলাদিনের চেরাগ’ নিয়ে আসছেন সোহেল তাজ

দশ বছর আগে মন্ত্রিত্ব ছেড়ে তুমুল আলোচনার জন্ম দেওয়া সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী তানজিম আহমেদ সোহেল তাজ ছোট গল্প লিখেছেন। দুই থেকে তিন ধাপে প্রকাশিত ওই ছোটগল্পের সিরিজের নাম ‘আলাদিনের চেরাগ’।

বৃহস্পতিবার ফেসবুকে এক স্ট্যাটাসে এমনটাই জানালেন টানা অনেকটা সময় ধরে রাজনীতির বাইরে থাকা এই রাজনীতিক। সোহেল তাজের রাজনৈতিক জীবনের বিভিন্ন ঘটনা গল্পে ফুটে উঠবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

বিজ্ঞাপন

সিরিজের প্রথম অংশের নাম কি হবে তা-ও স্ট্যাটাসে জানিয়ে দিয়েছেন সোহেল তাজ। প্রথম সিরিজের নাম ‘একটি ছেলে ও আলাদিনের জাদুর চেরাগ’।

স্ট্যাটাসে তিনি লিখেছেন:
‘আমি আমার চলার পথের কিছু অভিজ্ঞতা আর কাহিনী নিয়ে কিছু ছোট গল্প লিখার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। ২-৩টা সিরিজ হবে বিভিন্ন শিরোনামে।

আমার প্রথম সিরিজ এর নাম: একটি ছেলে ও আলাদিনের জাদুর চেরাগ

দ্বিতীয়ত, আমি জানি আপনারা অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছেন আমার ভবিষ্যৎ কর্মকাণ্ড জানার জন্য এবং ওই মর্মে আমি আপনাদের বলেছিলাম যে অতি শিগগিরই জানাব। ইনশাল্লাহ আমি আশা করছি আগামী ৭ দিনের মধ্যে আপনাদেরকে জানাতে পারব।’

বিজ্ঞাপন

স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী তাজউদ্দীন আহমদের ছেলে সোহেল তাজ ২০০১ সালে প্রথমবারের মতো গাজীপুরের কাপাসিয়া থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। ২০০৮ সালে নির্বাচনে একই আসন থেকে নির্বাচিত হয়ে ওই সময় সরকারের স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী হিসেবে শপথগ্রহণ করেন তিনি।

তবে এর কিছুদিন পর মন্ত্রিসভা থেকে পদত্যাগ করেন। পরে সংসদ সদস্য পদ থেকেও সরে দাঁড়ান তাজউদ্দিন পুত্র। এরপর ওই আসনে উপ-নির্বাচনে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন তার বোন সিমিন হোসেন রিমি।

সম্প্রতি সোহেল তাজের ভাগ্নে মামাতো বোনের ছেলে সৈয়দ ইফতেখার আলম প্রকাশ সৌরভ চট্টগ্রাম থেকে অপহরণের শিকার হন। এরপর থেকেই তার পরিবারের অভিযোগ, সৌরভের ব্যক্তিগত একটি সম্পর্কের জেরে তাকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। তারা আরও জানায়, এর আগেও গত ১৬ মে রাজধানীর বনানীর একটি বাসা থেকে র‍্যাব-১ পরিচয়ে সৌরভকে একদল লোক তুলে নিয়েছিল।

ওই সময় ফেসবুক স্ট্যাটাস ও লাইভের মাধ্যমে বিষয়টি নিয়ে আলোচনায় আসেন সোহেল তাজ। ২২ জুন ভোরে সৌরভকে উদ্ধার করে ময়মনসিংহ পুলিশ।

সম্প্রতি রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে একমাত্র ছেলে ব্যারিস্টার তুরাজ আহমদের বিয়ের আমন্ত্রণ কার্ড দিতে গেলে একে কেন্দ্র করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আবারও সোহেল তাজের রাজনীতিতে ফেরা নিয়ে জল্পনা-কল্পনা শুরু হয়।