চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

আর কোনো কোচের আমলে এত খারাপ খেলেননি মেসি

সেল্টা ভিগোর বিপক্ষে গোল পাননি লিওনেল মেসি, পাননি আগের ম্যাচে সেভিয়ার বিপক্ষেও। নিজের ৭০০ গোলের মাইলফলক থেকে মাত্র এক কদম দূরত্বে আর্জেন্টাইন মায়েস্ত্রোর হাহাকার কেবলই বাড়ছে। সঙ্গে কমছে বার্সেলোনার লা লিগা ধরে রাখার সম্ভাবনাও।

এই গোল না পাওয়ার পেছনে মেসিরও যেমন ব্যর্থতা আছে, দায় খানিকটা বর্তায় কোচ কিকে সেতিয়েনের কাঁধেও। অন্তত অতীত কোচদের সঙ্গে সেতিয়েনের পরিসংখ্যান তুলনা করলে সেদিকেই ইঙ্গিত করে।

সেল্টা ম্যাচসহ টানা তিন ম্যাচে গোল পাননি মেসি। এ নিয়ে সেতিয়েন আমলে ১৬ ম্যাচের ১০টিতেই গোল করতে ব্যর্থ বার্সা মহাতারকা।

বিজ্ঞাপন

সেতিয়েন আমলের আগে মেসির সবচেয়ে খারাপ সময় ভাবা হয় স্বদেশী কোচ টাটা মার্টিনোর আমলকে। শেষ ১০ বছরে ইতিহাসে ওই মৌসুমই সবচেয়ে খারাপ গেছে ছয়বারের ব্যালন ডি’অর জয়ী মহাতারকার। সেই ২০১৩-১৪ মৌসুমেও মেসি করেছিলেন ৪১ গোল। তার আগে পেপ গার্দিওলার প্রথম মৌসুমেই কেবল ৩৮ গোল করেছিলেন মেসি।

এবার যে খরা দেখা যাচ্ছে তাতে মেসি হুট করেই শেষ ১০ বছরের মতো টানা ৪০ গোলের রেকর্ড করবেন তেমন কোনো ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে না। সব মিলিয়ে এলএম টেনের মৌসুম গোল সর্বসাকুল্যে ২৬। অন্তত গার্দিওলা আমলের ৩৮ গোলকে ছাপিয়ে যেতে হলেও লা লিগায় মেসি পাচ্ছেন মাত্র ৬ ম্যাচ।

সঙ্গে যদি চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে উঠতে পারে বার্সা, সেক্ষেত্রে ম্যাচের সংখ্যা বাড়বে আরও চারটি। অর্থাৎ, ১০ ম্যাচে মেসিকে গোল করতে হবে আরও ১২টি। আর চল্লিশ ছুঁতে হলে ১৪ গোল। মেসির জন্য এ অসম্ভব না হলেও সেতিয়েনের সঙ্গে তার দ্বন্দ্বের যে খবর চলে এসেছে, তাতে মেসি নিজে গোল করা থেকে উৎসাহ পাবেন কিনা সেটাই এখন বড় প্রশ্ন!

শেয়ার করুন: