চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

আর্জেন্টাইন মুদ্রায় চিরঞ্জীব ম্যারাডোনা

নশ্বর পৃথিবী থেকে ডিয়েগো ম্যারাডোনা দেহত্যাগ করেছেন ১৩ দিন হল। সময়টা খুব বেশিদিন নয়, প্রিয় সন্তানকে হারানোর দাগটা এখনো দগদগে আর্জেন্টাইনদের মনে। যে যার মতো করে কিংবদন্তির জন্য শোক প্রকাশ করছেন। ১৯৮৬ বিশ্বকাপজয়ী মহাতারকা জায়গা করে আছেন তাদের স্মৃতির মণিকোঠায়। স্মৃতিকে স্থায়ী করার জন্য এবার বড় এক উদ্যোগই নিতে চলেছে দেশটির সরকার।

প্রস্তাবটা দিয়েছিলেন আর্জেন্টিনার রাজনৈতিক দল ফ্রেন্টে ডে তোডোসের নেতা নর্মা দুরাঙ্গো। দেশটির সিনেটে ১০০০ পেসো (১২ ডলার) নোটে ১৯৮৬ বিশ্বকাপে কোয়ার্টার ফাইনালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে করা ম্যারাডোনার ‘হ্যান্ড অব গড’ এবং ‘শতাব্দীর সেরা’ গোল দুটির স্থান দেবার প্রস্তাব দেন তিনি। মৌখিকভাবে প্রস্তাবটি গৃহীত হয়েছে সিনেটে।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

গত ২৫ নভেম্বর হার্ট অ্যাটাকে বুয়েন্স আয়ার্সের নিজ বাসায় মারা যান ৬০ বছর বয়সী ম্যারাডোনা।

বিজ্ঞাপন

‘এখানে ম্যারাডোনার কীর্তিকে স্মরণ করা আমাদের মুখ্য উদ্দেশ্য নয়, এরসঙ্গে অর্থনৈতিক বিষয়টিও জড়িত। আমরা জানি পর্যটকরা এদেশে এসে ম্যারাডোনার স্মৃতিকে সঙ্গে করে নিয়ে যেতে চাইবে।’ রেডিও সাক্ষাৎকারে এমন বলেছেন দুরাঙ্গো।

দুরাঙ্গো প্রস্তাব করেছেন নোটের দুপাশে ‘হ্যান্ড অব গড’ এবং ‘শতাব্দীর সেরা’ গোল দুটিকে স্থান করে দিতে। কিছু আর্জেন্টাইন অবশ্য এর বিপক্ষে। সেই ১৯৮৬ থেকেই ‘হ্যান্ড অব গড’ নিয়ে বিশ্ব ফুটবলে বিতর্ক আছে, বিতর্ককে পর্যটকদের হাতে তুলে দিয়ে সমালোচনা শুনতে রাজি নন তারা। এর চেয়ে সাত ইংলিশ ফুটবলারকে কাটিয়ে ম্যারাডোনার কোয়ার্টার ফাইনালে করা দ্বিতীয় গোলটিকে সমর্থন দিচ্ছেন আর্জেন্টাইনরা।

সবকিছু ঠিক থাকলে ২০২১ সালে ১০০০ পেসোর ৫০ শতাংশ নোটে অঙ্কিত হয়ে যাবে ম্যারাডোনার স্মৃতি। বর্তমান নোটে অঙ্কিত আছে আর্জেন্টিনার জাতীয় পাখি রুফাস হরনেরোর ছবি। নতুন বছরে নতুন নোটে অর্ধেকে থাকবে সেই পাখির ছবি, অর্ধেকে থাকবেন ম্যারাডোনা।

বিজ্ঞাপন