চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

আর্চারকে নেলসন ম্যান্ডেলার উদাহরণ দিলেন হোল্ডিং

স্টেডিয়াম ও দলের জৈব-নিরাপত্তা ব্যবস্থা ভেঙে ওল্ড ট্রাফোর্ড টেস্টের একাদশ থেকে শেষ মুহূর্তে ছিটকে পড়েছেন ইংল্যান্ডের পেসার জফরা আর্চার। এজন্য অনুতপ্ত হয়ে ক্ষমা চেয়েছেন। তাতে সমালোচনা কমছে না। ওয়েস্ট ইন্ডিজের সাবেক পেসার ও ধারাভাষ্যকার মাইকেল হোল্ডিং যেমন বলছেন, দলের স্বার্থে আর্চারকে বাদ দিয়ে কাজের কাজই করেছে ইংল্যান্ড।

সাউথ আফ্রিকার সাবেক প্রেসিডেন্ট কিংবদন্তি নেলসন ম্যান্ডেলা ও তার ত্যাগের কথা উদাহরণ হিসেবে টেনে স্কাই স্পোর্টসকে হোল্ডিং বলেছেন, ‘তার জন্য আমার কোনো সহানুভূতি নেই। বুঝতে পারি না কেনো মানুষজন সেই কাজগুলো করতে পারে না যা তাদের করা প্রয়োজন। ত্যাগের কথা যদি বলি, নেলসন ম্যান্ডেলা ২৭ বছর ছোট এক কক্ষে আটক ছিলেন, কখনো একটি ভুলও করেননি, একেই বলে ত্যাগ।’

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

ইংল্যান্ড দলের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন হোল্ডিং, ‘ইংলিশ ক্রিকেট বোর্ডের প্রটোকল ব্যবস্থা নিয়ে কিছু কথা জিজ্ঞেস করতে চাই। বুঝতে পেরেছি প্রটোকল একটা জায়গা ঘিরে হয়, কিন্তু এই বিষয়ে তাদের আরেকটু যুক্তিযুক্ত হওয়া প্রয়োজন ছিল।’

বিজ্ঞাপন

সাউদাম্পটন থেকে ম্যানচেস্টারে নিজেরাই গাড়ি চালিয়ে পৌঁছেছেন খেলোয়াড়রা। গাড়ি চালিয়ে সাসেক্সে নিজ বাড়িতে চলে গেছেন আর্চার। বাসে একসঙ্গে না গিয়ে কেনো গাড়ি চালিয়ে স্টেডিয়ামে যাচ্ছেন ক্রিকেটাররা সেটা নিয়েও জোর প্রশ্ন তুলেছেন হোল্ডিং।

‘কেনো ইংল্যান্ড দল বাসে করে যাচ্ছে না? তারা সবাই কোভিড টেস্টে নেগেটিভ হয়েছে, এমনকি একসঙ্গে ছয়টি ম্যাচও খেলেছে, একসঙ্গে আসা-যাওয়াও করছে। সেটা কেনো বাসে হচ্ছে না? কেনো তাদের গাড়িতে করে আসার অনুমতি দেয়া হচ্ছে? এগুলো নিয়েও ভাবনার আছে, নাকি?’