চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

আরও দেরি হলে মার্টিনেজকে হারাবে বার্সা

গত কয়েকমাস, সপ্তাহ, দিন ধরে লৌতারো মার্টিনেজের পেছনে ছুটছে বার্সেলোনা। করোনাভাইরাস থাবা না বসালে হয়তো এতদিনে আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ডের সঙ্গে একটা চুক্তিতে আসতে পারতো কাতালান জায়ান্টরা। মহামারীর কারণে সেটা হয়নি, জেগেছে হারানোর সম্ভাবনাও। ইন্টার মিলান স্ট্রাইকারের পেছনে এখন ছুটছে রিয়াল মাদ্রিদ, বায়ার্ন মিউনিখের মতো ক্লাবগুলোও।

২০১৯-২০ মৌসুম থেকে প্রথমবারের মতো ১ বিলিয়ন আয়ের সম্ভাবনা ছিল বার্সার। যে আয়ের একটা অংশ মার্টিনেজের জন্যও বরাদ্দ রাখা ছিল। সেখানে লাভ তো দূরের কথা, কেবল জুনেই ১৫০ মিলিয়ন ইউরো কম আয় হয়েছে ক্লাবটির। যেখানে আয় কমে যাচ্ছে, সেখানে ইন্টারের দাবি করা ১১১ মিলিয়ন বাইআউট ক্লজ খরচ করে কীভাবে লৌতারোকে কেনা যায় সেটা এখন বার্সার দুশ্চিন্তা।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

ইন্টারের চাহিদা পূরণ করতে ৭০ মিলিয়ন ইউরোর সঙ্গে একজন অথবা দুজন খেলোয়াড়কে দিতে চাইছে বার্সা। সেটা আর্তুরো ভিদাল বা জুনিয়র ফিরপো হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি। ওদিকে ইন্টার যেভাবে পুরো টাকার জন্য গো ধরে বসে আছে, ভেস্তে যাওয়ার পথে বার্সার এতদিনের পরিশ্রমই।

বিজ্ঞাপন

বার্সার এ ব্যর্থতার সুযোগ নিতে মুখিয়ে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াল মাদ্রিদ। তারাও এখন চায় ২২ বছর বয়সী স্ট্রাইকার বার্নাব্যুতে খেলুক। অন্যদিকে আগ্রহ দেখিয়েছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডও। লৌতারোর এজেন্টের সঙ্গে এরইমধ্যে যোগাযোগ করেছে রেড ডেভিলরা।

একসঙ্গে বড় দুই ক্লাব লৌতারোর দিকে নজর দেয়ায় হাতে সময় কমে আসছে বার্সার। হাতে অর্থের যোগান কম বলেই আগামী মৌসুমে ন্যু ক্যাম্পে নেইমারের প্রত্যাবর্তন সম্ভাবনা খুব কম, এখন মার্টিনেজকে হারালে আসছে মৌসুমেও আক্রমণভাগে মেসির সঙ্গী নিয়ে ধুঁকতে হবে ক্লাবটিকে।