চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

আমি আগে পরিচালক পরে অভিনেতা: সহীদ উন নবী

পরিচালনা ও অভিনয় দুই মাধ্যমে সমানতালে কাজ করছেন ছোটপর্দার পরিচিত মুখ সহীদ উন নবী। তবে তিনি নিজেকে নির্মাতা পরিচয় দিতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন। নাট্য নির্মাতাদের সংগঠন ডিরেক্টরস গিল্ডের কার্যনির্বাহী কমিটির নির্বাচিত সদস্য নবী।

অভিনয় করেন শখের বসে অথবা পছন্দ মতো কাজের সুযোগ পেলে। চ্যানেল আই অনলাইনের সঙ্গে আলাপে সহীদ উন নবী জানান, সবসময় তার ‘প্যাশন’-এর জায়গা থেকে নির্মাণকে প্রাধান্য দিয়ে থাকেন। অভিনয় করেন শখে, পরিচিতদের অনুরোধে।

বিজ্ঞাপন

মিডিয়া স্টাডিজে লেখাপড়া করেছেন সহীদ উন নবী। পরিচালক হিসেবে তার পথচলার আগে বিখ্যাত চলচ্চিত্র নির্মাতা মতিন রহমানের সঙ্গে। নবীর ভাষায়, মতিন রহমান আমার শিক্ষা গুরু, কর্ম গুরু। এছাড়া আল মনসুর, আশরাফি মিঠু এবং শরাফ আহমেদ জীবনের সহকারী পরিচালক হিসেবে কাজ করেছেন তিনি।

২০১২ সালে ‘হাইকোর্টে জব’ নাটক নির্মাণের মাধ্যমে প্রথম নাটক নির্মাণ করেন সহীদ উন নবী। এরপর একে একে প্রায় ৭৫টি খণ্ড নাটক, ৩০ টি টেলিফিল্ম, ২৫ টির মতো বিজ্ঞাপন বানিয়েছেন তিনি। বর্তমানে ব্যস্ত নতুন বছর ও ভালোবাসা দিবসে নাটক নিয়ে।

সহীদ উন নবী অভিনয় করেছেন রেদওয়ান রনি, মোস্তফা কামাল রাজ, মাসুদ সেজান, রওনক আহমেদ, আবু হায়াত মাহমুদসহ অসংখ্য নির্মাতার নাটকে। তিনি জানালেন, তার অভিনীত সিরিয়ালের সংখ্যা পনেরটি এবং অভিনয় করা খণ্ড নাটকের সংখ্যা অগণিত।

নবী যেসব নাটক নির্মাণ করেন সেখানে অভিনয়ও করেন। এর বাইরে অন্যান্য পরিচালকদের নাটকেও কাজ করে যাচ্ছেন তিনি। বলেন, একশো তে একশো, বিবাহ হবে এসব সিরিয়ালে গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছি। এছাড়া খণ্ড নাটকেও কাজ নিয়মিত গুরুত্বপূর্ণ সব চরিত্রে অভিনয় করছি।

নির্মাতা অভিনেতা হলে ‘বাড়তি সুবিধা থাকে’ উল্লেখ করে নবী বলেন, নির্মাতা যখন অভিনয় করেন তখন সময়জ্ঞান ভালো বোঝেন। কাজের ব্যাপারে সিনসিয়ার হন। অভিনয় জিনিসটা খুব ভালো বুঝতে পারেন। তবে আমাকে পরিচালনা বা অভিনয় যে কোনো একটা করতে বলা হলে ‘ডেফিনেটলি আই গো ফর ডিরেশন’। সবার আগে আমি পরিচালক, পরে অভিনেতা।

‘যেহেতু মিডিয়াতে যুক্ত তাই সব মাধ্যমে কাজ করছি। আমাকে যদি মিডিয়া সম্পর্কিত অন্য কাজ যেমন রেডিওতে কাজের সুযোগ আসে অবশ্যই করবো। আমি একজন মিডিয়া কর্মী, তাই মিডিয়ার সঙ্গে জড়িত যে কোনো ভালো কাজের সঙ্গে থাকবো।’

সম্প্রতি ‘মাইন্ড করবেন না’ নামে একটি নাটক নির্মাণ করলেন সহীদ উন নবী। তিনি অভিনয়ও করেছেন। অন্যান্য চরিত্রে আরও অভিনয় করেছেন মুশফিক ফারহান, ইভানা, মান্তাহা, নিপুণ প্রমুখ। নাটকটি প্রযোজনা করেছেন হারিস মোহাম্মদ।