চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

আমার মৃতদেহের ওপর দিয়ে এনআরসি, সিএবি করতে হবে: মমতা

বিতর্কিত নাগরিকত্ব আইনের কঠোর প্রতিবাদ

ভারতের বিতর্কিত নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন এবং জাতীয় নাগরিকপঞ্জির (এনআরসি) বিরোধিতায় এবার রাস্তায় নামলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেছেন: আমি বাংলায় আছি। এনআরসি, সিএবি করতে হলে আমার মৃতদেহের ওপর দিয়ে করতে হবে।

মমতা বন্দোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে তৃণমূলের মিছিল সোমবার বেলা ১টায় রেড রোডের অম্বেডকর মূর্তির পাদদেশ থেকে রওনা হয়। দুপুর ২টার দিকে ওই মিছিল জোড়াসাঁকো পৌঁছায়।

বিজ্ঞাপন

জোড়াসাঁকো পৌঁছে মঞ্চে ওঠেন মমতা। সেখানে তিনি বলেন: জোড়াসাঁকো ঠাকুরবাড়িকে সাক্ষী রেখে কয়েকটা কথা বলতে এসেছি। একসময় যখন বঙ্গভঙ্গ হয়েছিল, হিন্দু মুসলিমের হাতে রাখি পরিয়ে ‘বাংলার মাটি-বাংলার জল’ গান গেয়েছিলেন রবীন্দ্রনাথ। হঠাৎ আজ কী হলো? বিজেপি ক্ষমতায় এসে নিজেদের আকাশের চেয়েও বড় ভাবছে।

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন: আপনারা ভোট দেন না? ভোটার তালিকায় আপনার নাম নেই? আপনার ছেলেমেয়ে স্কুলে পড়ে না? আমরা সবাই নাগরিক। আপনি আবার কিসের নাগরিকত্ব দেবেন?

মমতার ভাষায়: দয়া করে কেউ ট্রেনে আগুন জ্বালাবেন না। অধিকাংশ ট্রেন ভারত সরকার বন্ধ করে দিয়েছে। তাতে সাধারণ মানুষের সমস্যা হচ্ছে। বারবার বলছি, ট্রেনে আগুন দেবেন না। পোস্ট অফিসে আগুন দেবেন না। রাস্তায় আগুন দেবেন না। যারা আপনার পক্ষে রয়েছেন, তাদের সমস্যায় ফেলছেন কেন?

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী বলেন: সিএবি প্রত্যাহার করতে হবে। যতক্ষণ না সিএবি প্রত্যাহার করা হবে, ততক্ষণ আমরা রাস্তায় থাকব। আমাদের সরকারকে ফেলে দেবে? ফেলে দিন। এই ইস্যুতে আমরা যে লড়াই করছি, তা থামবে না আর।

মমতা বলেন: আমাকে জিজ্ঞেস করছে সিআইএসএফ লাগবে? সিআরপিএফ লাগবে? বিএসএফ লাগবে? আমি বলছি, লাগবে না। আমাদের পুলিশই যথেষ্ট। আমাদের সাধারণ মানুষ পুলিশের সঙ্গে সহযোগিতা করে সব ঠিক করে নেবে।