চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

আমার কাছে প্রমাণ আছে, উহানের ল্যাব থেকেই ছড়িয়েছে করোনা: ট্রাম্প

কোভিড-১৯ করোনাভাইরাসে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হয়েছে শক্তিধর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। এরই মধ্যে দেশটিতে আক্রান্ত হয়েছে ১১ লাখ প্রায়। মারা গেছে ৬৩ হাজারের অধিক। স্বাভাবিকভাবেই করোনা পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বিগ্ন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

ভাইরাসটি ছড়িয়ে পড়ার পর থেকে তিনি বারবার চীনকেই দায়ী করে আসছিলেন। এমনিক চীনের কাছ থেকে ক্ষতিপূরণও চাইবেন বলে হুমকি দিয়েছেন তিনি। কিন্তু এবার তিনি আরও বড় গলায় বললেন, তার কাছে প্রমাণ আছে যে, করোনাভাইরাস ছড়ানো হয়েছে চীনের উহান ল্যাব থেকেই।

বিজ্ঞাপন

বিবিসি বলছে, হোয়াইট হাউসে এক সংবাদ সম্মেলনে এমন দাবি করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। সাংবাদিকরা জানতে চান, কীসের ভিত্তিতে চীন থেকেই এই ভাইরাস ছড়ানো হয়েছে বলে দাবি করছেন? জবাবে ট্রাম্প জানান, তার কাছে এমন কিছু প্রমাণ আছে, যা নিশ্চিত করে যে, করোনা ভাইরাসের উৎস আসলে চীনের উহান ইনস্টিটিউট অব ভাইরোলজি।

বিজ্ঞাপন

“হ্যাঁ আমার কাছে এর প্রমাণ আছে‘ ট্রাম্প

সাংবাদিকরা সে প্রমাণ কী জানতে চাইলে তিনি তা জানাতে অস্বীকৃতি জানান।

বিজ্ঞাপন

ট্রাম্প বলেন, সেসব আমি আপনাদের সামনে বলতে পারি না।

এসময় এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি খুব কড়া ভাষায় বলেন, চীনের কাছ থেকে শুধু ক্ষতিপূরণ আদায় করাই নয়, আরও কঠিন পদক্ষেপ গ্রহণ করতে চলেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র।

ইতোমধ্যে যুক্তরাষ্ট্র চীনের ক্ষেত্রে আমদানি শুল্ক বহুগুণ বাড়িয়ে দেওয়ার কথা ভাবছে। পাশাপাশি এমনও হুঁশিয়ারি দেয় যে, চীন যদি যুক্তরাষ্ট্রের শর্ত মেনে না চলে, তবে তাদের সঙ্গে সব ধরণের বাণিজ্য চুক্তিও শেষ করে দেয়া হবে।

এসময় ডোনাল্ড ট্রাম্প করোনা পরিস্থিতির সঙ্গে আরেকটি নতুন অভিযোগ তুলেছেন চীনের বিরুদ্ধে।

তিনি বলেন, আসলে আগামী নভেম্বরে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে তাকে হারানোর জন্যে চীন যেকোনো পথই অবলম্বন করতে পারে। চীন করোনা ভাইরাস পরিস্থিতিতে যেভাবে আচরণ করছে, তাই প্রমাণ করে যে, এর পিছনে তাদের হাত আছে।

অবশ্য চীন প্রতিবারই ডোনাল্ড ট্রাম্পের এমন অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে এবং অহেতুক অভিযোগ না করে করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করারও আহ্বান জানায় দেশটি।