চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

আমাদের দুজনের রাশি এক: সাকিবকে নিয়ে শাকিব

সেমিফাইনালে উঠার স্বপ্ন টিকিয়ে রাখতে ভারতের বিপক্ষে মাঠে নামার আগে সাকিবসহ বাংলাদেশ টিমকে শুভ কামনা জানালেন শাকিব খান…

জাতীয় ক্রিকেট দলের তারকা ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান ও চলচ্চিত্রের শীর্ষনায়ক শাকিব খান দুজনই দেশের দুই অঙ্গনের গর্ব। ক্রিকেট মাঠ ও রুপালী পর্দা দুই ভুবনেই তারা আলাদাভাবে প্রতিষ্ঠিত।

বিশ্বের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডার খ্যাত সাকিব আল হাসান বল ও ব্যাট হাতে রয়েছেন দারুণ ফর্মে। এবার বিশ্বকাপ আসরেও একের পর রেকর্ড গড়ে তিনি যেমন নিজেকে সমৃদ্ধ করছেন, তেমনি লাল সবুজের পতাকার জন্য বিজয় ছিনিয়ে আনতে অন্যতম কাণ্ডারি সাকিব আল হাসান।

বিজ্ঞাপন

বিশ্বকাপে সেমিফাইনালের স্বপ্ন টিকিয়ে রাখতে মঙ্গলবার ভারতের বিপক্ষে মাঠে নামবে বাংলাদেশ দল। প্রতি ম্যাচের মতো দেশবাসী আশা করছেন আজও সাকিব হানা দেবেন ভারতের টিমে। তার আগে দেশের শীর্ষ নায়ক শাকিবও আগাম শুভ কামনা জানিয়ে রাখলেন সাকিবসহ দেশের ক্রিকেটারদের প্রতি।

মজার ব্যাপার হচ্ছে, সাকিব ও শাকিব দুজনেই পরস্পরের ভালো বন্ধু। চ্যানেল আই অনলাইনকে এমনটাই বলেছেন ঢালিউডের শীর্ষ অভিনেতা শাকিব। সাকিব আল হাসানকে নিয়ে নায়ক শাকিব বলেন, সাকিবের সঙ্গে আমার পার্সোনালি ভালো ফ্রেন্ডশিপ আছে। তাছাড়া তার সঙ্গে আমার নামে যেমন মিল, তেমন আরও কিছু দিকে মিল আছে। তিনি বলেন, আমাদের দুজনের রাশি একই (সাকিব আল হাসানের জন্মদিন ২৪ মার্চ, শাকিব খানের জন্মদিন ২৮ মার্চ। দুজনেই মেষ রাশির জাতক)।

জনপ্রিয় এই চিত্রনায়ক বলেন, সাকিব আল হাসানকে নিয়ে আমি প্রাউড ফিল করি। সে যেমন ভালো খেলোয়াড়, তেমনি ভালো মানুষ। সবদিক দিয়ে সাকিব খুব গোছানো। কঠোর পরিশ্রমী মানুষ সে। সবসময় চেষ্টা করে দেশের মুখ উজ্জ্বল করার। শুধু সাকিব নয়, তার মতো যারা দেশের মুখ উজ্জ্বল করার চেষ্টা করছে তাদের আরও বেশি বেশি সাপোর্ট দেয়া উচিত।

দেশের মানুষ তো সাপোর্ট দিচ্ছেই। এরপরেও রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ পর্যায় থেকেও আরো বেশি বেশি সাপোর্ট দেয়া উচিত। যারা বিশ্বের কাছে দেশের প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করে তাদের টাকা-পয়াসার দরকার নেই, শুধু দরকার সাপোর্ট। সুস্থভাবে, সুন্দরভাবে সে যেন তার কাজটা ঠিকভাবে করতে পারে, এমন সাপোর্ট দরকার।

যে কোনো সেক্টর থেকে যারা পৃথিবীর বুকে বাংলাদেশের জন্য কাজ করে, বাংলাদেশের প্রতিনিধি হয়ে কাজ করে শুধুমাত্র সাপোর্ট পেয়ে তারা আরও বেশি উৎসাহ পাবে। অনেকসময় অনেকেই ভেঙে পড়ে। মানুষের সাপোর্ট পেলে, ভালোবাসা পেলে তারা আর ভেঙে পড়বে না। নিজেদের কাজটা ঠিকভাবে করতে পারবে। এতে দেশের মুখ উজ্জ্বল হবে।

Bellow Post-Green View