চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

আমাদের খেলোয়াড়, খেলেই যাচ্ছে!

‘ম্যাচসেরা রাহুল রায়!’ ‘আসর সেরা রাহুল রায়!’ -এই লাইনগুলো গত একদশক ধরে কতবার যে লিখতে হয়েছে, গুণে বলাটাও অসম্ভব। চ্যানেল আই জিতুক-হারুক, এই লাইনগুলো যেন অক্ষত থাকবেই।

প্রশ্ন হচ্ছে এটা কোন রাহুল, আর কোন খেলায় সে ম্যাচসেরা? হ্যাঁ, এখানেই তার পরিচয়টা এক শব্দে বলা যাচ্ছে। সহকর্মীদের কাছে তার ডাকনাম ‘খেলোয়াড়’! সব খেলায় এবং সব মাঠেই তিনি সমান পারদর্শী। বলা যায় একাই একশো।

আরও একবার রাহুল তার সামর্থ্যের প্রমাণ রাখলেন। চলতি প্রাণ ডিআরইউ মিডিয়া কাপ ফুটবল টুর্নামেন্টে চ্যানেল আই বুধবার ১০-০ গোলে বিধ্বস্ত করেছে আজকালের খবরকে। রাহুল রায় একাই দিয়েছেন ৮ গোল। হ্যাঁ, আপনি ঠিকই শুনছেন, একাই ৮ গোল করেছেন রাহুল। অবিশ্বাস্য হলেও সেটি বাস্তব। এই জয়ে আসরে গ্রুপসেরা হওয়ার পথে চ্যানেল আই।

গত সপ্তাহে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির ক্রিকেট টুর্নামেন্টেও রাহুল-ঝলকের দেখা মিলেছ। অপরাজিত ৭৮ রানের এক নান্দনিক ইনিংস খেলে চ্যানেল আইকে প্রায় জিতিয়েই দিচ্ছিলেন আরও একটি ট্রফি। শেষ পর্যন্ত হয়নি। দল হয়েছে রানার্সআপ। কিন্তু আসরের সেরা খেলোয়াড় ঠিকই হয়েছেন রাহুল।

বিজ্ঞাপন

রাহুল কান্তি রায় তপুর কথা। একসময় জাতীয় হকি দলের অপরিহার্য সদস্য তিনি। এখন চ্যানেল আই-এর যেকোনো খেলার যেকোনো দলের অপরিহার্য এক নাম। অনেকেই হয়তো জানেন আবার জানেন না, রাহুল ছিলেন জাতীয় হকি দলের ১০ নাম্বার জার্সি হোল্ডার। হকির স্টিক উঠিয়ে রেখে ২০১১ সালে হাতে তুলে নেন টিভি নিউজের বুম।

মাঠের মানুষ যখন মাঠের টান তো থাকবেই। হকির মানুষ কাঁপাচ্ছেন ফুটবল-ক্রিকেটের ময়দান। প্রথমসারির গণমাধ্যমের অংশগ্রহণে আয়োজিত সব টুর্নামেন্টেই রাহুল রায় প্রতিপক্ষ দলের জন্য এক মূর্তিমান আতঙ্ক। আবার এমনও- ময়দানজুড়ে তার দাপিয়ে বেড়ানো, ঝলক, উপভোগ করেন প্রতিপক্ষও। রাহুল রায় এমনই এক নাম।

তার জার্সি পরা দেখলেই অন্যরা বুঝে নেয়, জিততে হলে চোখ-নাকের পানি এক করে ছাড়বে। রাহুল রায়ের উড়ন্ত ফর্মে আরও একবার আরেকটি শিরোপা উঁচিয়ে ধরতে প্রস্তুত হচ্ছে চ্যানেল আই।

বৃহস্পতিবার টুর্নামেন্টের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন জাগো নিউজের বিপক্ষে ম্যাচ। রাহুল রায় তপু খেলে দিলে জেগে ওঠা হবে না জাগো নিউজের। গুডলাক খেলোয়াড়, খেলে যাও অফুরান…

বিজ্ঞাপন