চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘আমরা ৫% ভালোবাসা পেলে বিনিময়ে ৫০০% ভালোবাসা দেই’

ফেরদৌসের ভিসা বাতিল ও কালো তালিকাভুক্তির ঘটনায় যা বললেন জয়া, মিম ও ফারিয়া…

কলকাতার রায়গঞ্জের ঘটনার প্রভাব পড়েছে ঢাকাতেও। গেল মঙ্গলবার চিত্রনায়ক ফেরদৌস কালো তালিকাভুক্ত হয়ে দেশে ফেরার নির্দেশনা পাওয়ার বিষয়টি সচেতন করেছে বাংলাদেশের অনেক তারকাকে। কেউ কেউ বিষয়টি নিয়ে মন্তব্য করেছেন। আবার অনেকে এই ঘটনায় নিজেকে না জড়িয়ে নিরব আছেন। এই বিষয়ে ভারতীয় গণমাধ্যম ‘টাইমস অব ইন্ডিয়া’র সঙ্গে কথা বলেছেন জয়া আহসান, নুসরাত ফারিয়া ও বিদ্যা সিনহা মিম।

অভিনেত্রী জয়া আহসান জানান, মঙ্গলবারের ঘটনার পর থেকে অসংখ্য মেসেজ আসছে। তিনি বলেন, ‘অনেক মেসেজ পেয়েছি। যারা আমাকে নিয়ে দুশ্চিন্তায় ছিলেন তাদের জানাতে চাই, আমি এখন ঢাকায় কাজ করছি। আমি বাংলাদেশের বাঙালি। কলকাতায় আমার কাজ করার কারণ হলো, আমি মনে করি সেখানে ফিল্মের জন্য কিছু দেয়ার সুযোগ আছে।

বিজ্ঞাপন

তিনি আরো বলেন, ভারতকে সম্মান করি এবং ভারতের সিনেমাপ্রেমি মানুষের কাছ থেকে অনেক ভালোবাসা পেয়েছি। শিল্পীর কাজ হলো শিল্পের আদানপ্রদানের মাধ্যমে দুই দেশের মাঝে বন্ধন তৈরি করা। আমারও মূল লক্ষ্য সেটাই। কেউ চাইবে না দেশের বাইরের কেউ দেশের রাজনীতিতে সম্পৃক্ত হোক। বাংলাদেশের নাগরিকের যেমন ভারতের রাজনীতিতে অংশ নেয়া উচিত নয়, ভারতের নাগরিকদেরও বাংলাদেশের রাজনীতি সম্পর্কে স্বচ্ছ থাকা উচিত। অভিনয়ের বাইরে আর কোনো কিছুতেই আমার আগ্রহ নেই এবং আমি এমনই থাকতে চাই।

জয়া বর্তমানে বঙ্গমাতা আন্তর্জাতিক মহিলা গোল্ডকাপের শুভেচ্ছা দূত হিসেবে প্রচারণার কাজ নিয়ে ব্যস্ত আছেন। মে মাসে কলকাতায় মুক্তি পাবে জয়ার ছবি ‘কণ্ঠ’। কিছুদিন পরেই কলকাতায় যাওয়ার কথা জয়ার।

বিরস দাসগুপ্তের ‘বিবাহ অভিযান’ ছবিতে মিমি চক্রবর্তীর যায়গায় কাজ করছেন নুসরাত ফারিয়া। তবে তিনি এখন ঢাকায়। জানালেন, ঘটনা সম্পর্কে জেনেছেন। তিনি বলেন, ‘খুবই মন খারাপ হয়েছে। ফেরদৌস আমার পারিবারিক বন্ধু। আমার সব প্রচারণায় তিনি থাকেন। এটা নিশ্চিত যে আবেগের কারণে এই ঘটনা ঘটেছে। অন্য দেশ থেকে এসে অবশ্য সেই দেশের নিয়ম মানা উচিত।

সৃজিত মুখার্জির ‘ইয়েতি অভিযান’-এ কাজ করেছিলেন বিদ্যা সিনহা সাহা মীম। তিনি বলেন, ‘আমি ফেরদৌস ভাইকে চিনি বহু বছর ধরে। তিনি কলকাতাকে ভালবাসেন। তিনি যা করেছেন, ভালোবাসার যায়গা থেকেই করেছেন। আমরা বাংলাদেশিরা ৫% ভালোবাসা পেলে বিনিময়ে ৫০০% ভালোবাসা ফেরত দেই। যে কোনো দেশের নিয়ম সম্পর্কে জানা থাকা গুরুত্বপূর্ণ। প্রচারণায় যদি ভিনদেশিদের অংশ নেয়ার নিয়ম না থাকে, তাহলে সেটা মেনে চলা উচিত। এমন বিতর্কে তার জড়িয়ে যাওয়ার বিষয়টি সত্যিই দুঃখজনক।’

লোকসভা নির্বাচনে ভারতের পশ্চিমবঙ্গে তৃণমূল কংগ্রেসের প্রচারণায় গিয়ে আলোচনা-সমালোচনার ঝড় তুলেছেন বাংলাদেশের তারকা চিত্রনায়ক ফেরদৌস। বিতর্কের মুখে গেল মঙ্গলবার রাতেই কলকাতা থেকে ঢাকায় পৌঁছেছেন তিনি। তবে ভারত ছাড়ার আগে বিধি বহির্ভূত কাজে অংশ নেয়ায় ফেরদৌসের ভিসা বাতিল করে ভারত সরকার। এজন্য দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় তাকে কালো তালিকাভুক্ত করেছে। -টাইমস অব ইন্ডিয়া

Bellow Post-Green View