চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

আবার ক্ষেপেছে নর্থ কোরিয়া

কোরীয় উপদ্বীপ অঞ্চলে পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ নিয়ে ইতিবাচক আলোচনার সম্ভাবনা নিয়ে যখন সবার মনে প্রশ্ন, এর মাঝেই বহুদিন পর আবার দু’টি মিসাইল উৎক্ষেপণ করল নর্থ কোরিয়া।

বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় ভোরে নর্থ কোরিয়া সমুদ্রে দু’টি স্বল্প পাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করে বলে দাবি করেছেন সাউথ কোরিয়ার দুই চিফ অব স্টাফ।

বিজ্ঞাপন

তারা জানান, প্রথম মিসাইলটি ভোর ৫টা ৩৪ মিনিটে এবং দ্বিতীয়টি ৫টা ৫৭ মিনিটে ছোড়া হয়। মিসাইল দু’টি ঘণ্টায় ৫০ কিলোমিটার বেগে ৪৩০ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে জাপান সাগরে (একে পূর্ব সাগরও বলা হয়) পতিত হয়।

দেশটির পূর্বাঞ্চলীয় শহর ওয়ানসানের কাছাকাছি একটি এলাকা থেকে মিসাইলগুলো উৎক্ষেপণ করা হয়। তবে ওই সময় নর্থ কোরীয় নেতা কিম জং উন সেখানে উপস্থিত ছিলেন কিনা তা জানা যায়নি।

বিজ্ঞাপন

বিবিসি জানায়, আগামী মাসে একটি যৌথ সামরিক মহড়া করার পরিকল্পনার ঘোষণা দিয়েছে সাউথ কোরিয়া ও যুক্তরাষ্ট্র। এতে ক্ষিপ্ত হয়েই নতুন করে ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালালো নর্থ কোরিয়া।

নর্থ হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছে, এই সামরিক মহড়া পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ আলোচনা আবার শুরু হওয়ার যে আভাস দেখা দিয়েছিল তাতে নেতিবাচক প্রভাব পড়তে পারে।

নর্থ কোরিয়া অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ বিশেষজ্ঞ জেফরি লুইস এক টুইটবার্তায় বলেছেন, ক্ষেপণাস্ত্রগুলো দেখতে কেএন-২৩ মডেলের মিসাইলের মতো মনে হয়েছে।

মিডলবারি ইনস্টিটিউট অব ইন্টারন্যাশনাল স্টাডিজের এই গবেষক জানান, কেএন-২৩ জাতীয় মিসাইল পারমাণবিক অস্ত্রের মতোই বিস্ফোরকের ভার বহন করতে পারে এবং এমন ভার নিয়ে সাউথ কোরিয়ায় মার্কিন বাহিনীর বেশিরভাগ অংশকেই টার্গেট করার জন্য যথেষ্ট।

Bellow Post-Green View