চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

আবার আইসোলেশনে বরিস জনসন

আগে একবার করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আইসিইউ ঘুরে আসা যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন আবারও আইসোলেশনে গেছেন। একজন সংসদ সদস্যের সঙ্গে দেখা করার পরই সেই ব্যক্তির করোনাভাইরাস পরীক্ষার ফল পজিটিভ ফলাফল আসে।  এজন্যই আইসোলেশনে যান তিনি।

তবে প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন, তার শরীরে কোনো উপসর্গ নেই।

বিজ্ঞাপন

বৃহস্পতিবার অ্যাশফিল্ডের মন্ত্রী লি অ্যান্ডারসনের সঙ্গে ৩৫ মিনিট কাটান জনসন। তারপরেই লিয়ের করোনা পরীক্ষার ফল পজিটিভ আসে।

এর আগে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর বাসভবন ও প্রশাসনিক দপ্তর ১০ ডাউনিং স্ট্রিট থেকে বলা হয়, জনসন করোনাভাইরাস নিয়ে জটিল ঘোষণা দিবেন এবং সামনের দিনগুলোতে যুক্তরাজ্যকে সমতায় আনার চেষ্টা করবেন।

বিজ্ঞাপন

জনসন আইসোলেশনে যাওয়ার আগের এক পরিকল্পনার ঘোষণায় ডাউনিং স্ট্রিট জানিয়েছিলো, সেখানে তার যুক্তরাজ্যের পক্ষে চলমান উচ্চাভিলাষের একটি স্পষ্ট সংকেত থাকবে।

সেখানে বলা হয়েছিলো, জনসন ‘মূল কোভিড আলোচনার’ সভাপতিত্ব করবেন এবং চ্যান্সেলর রুসি সুনাকের সাথে ‘আরও ভালভাবে গড়ার’ প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নের জন্য আসন্ন ব্যয় পর্যালোচনা করার কাজ করবেন।

টুইটারে বরিস জনসন জানান, আমি নিয়ম মেনে চলছি। ১০ নাম্বার থেকেই আমি কাজ করবো কেননা আমি সরকারের মহামারী প্রতিক্রিয়ার নেতৃত্ব দিচ্ছি।

১০ নম্বর ডাউনিং স্ট্রিট এর একজন মুখপাত্র বলেন, প্রধানমন্ত্রী ভালো আছেন এবং তার কোনো উপসর্গ নেই।

এর আগে এপ্রিল মাসে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে তিনদিন আইসিইউতে ছিলেন বরিস জনসন। পরে সুস্থ হয়ে ফিরে বলেন, যেকোনো উপায়ে এটাতে তাড়াতে হবে। তার জীবন বাঁচানোর জন্য স্বাস্থ্যসেবা দানকারীদেরও ধন্যবাদ দেন তিনি।