চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

আপদকালীন নেতার ‘ক্যাপ্টেন্স নকে’ বিপদ এড়িয়েছে ভারত

দেশে ফিরে কেমন আছেন বিরাট কোহলি, এখন পর্যন্ত জানা যায়নি। হয়ত চোখ রাখছেন টিভি পর্দায়। হয়ত কিঞ্চিৎ দুশ্চিন্তার ভাঁজও পড়েছে কপালে! প্রথম সন্তানের আগমন নিয়ে ভাবনার ফাঁকে হয়ত কষে ফেলছেন হিসাবও। অ্যাডিলেডে নিজের কতটা ভুল ছিল, মেলবোর্নে কীভাবে সেই হিসাবের প্রথমপর্বে সফল তার ‘ডেপুটি’ আজিঙ্কা রাহানে!

মেলবোর্নে ভারত অধিনায়ক কোহলির সিংহাসন টলানোর খানিকটা ব্যবস্থা সেরে ফেলেছেন তার সহ-অধিনায়ক রাহানে। এমনিতে কোহলিকে ওয়ানডে আর টি-টুয়েন্টি থেকে সরিয়ে রোহিত শর্মাকে দেখার জন্য উন্মুখ ভারতবাসী, এরমাঝে রাহানে খেলেছেন ‘নেতার’ মতো ১০৪ রানের অপরাজিত এক ইনিংস।

বিজ্ঞাপন

রবীন্দ্র জাদেজাকে নিয়ে ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক রাহানের ঠিক ১০৪ রানের জুটি। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে এনে দিয়েছে মূল্যবান ৮২ রানের লিড। সফরকারীদের দ্বিতীয় দিন শেষ হয়েছে ৫ উইকেটে ২৭৭ রান তুলে।

কেবল ১০৪ রান করেই সব প্রশংসা নিয়ে যাচ্ছেন রাহানে তাও নয়, ৬৪ রানের মধ্যে মায়াঙ্ক আগারওয়াল, শুভমন গিল ও চেতেশ্বর পূজারাকে হারানো ভারতকে ব্যাটিংয়ে শক্ত হাতে নেতৃত্ব দিয়েছেন ডানহাতি ব্যাটসম্যান। সফরকারীদের ইনিংসে পঞ্চাশ পেরোনো জুটি হয়েছে তিনটি, যার দুটিতে রাহানের অবদান। অন্যটি পূজারাকে নিয়ে অভিষিক্ত গিলের ৬০ রানের, দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে।

বিজ্ঞাপন

৬৫ বলে ৪৫ করে গিল আউট হওয়ার পর উইকেটে আসেন রাহানে, খেলে গেছেন দিনের বাকি সময়টুকু। রিশভ পান্টের সঙ্গে ৫৭, আর জাদেজার সঙ্গে ১০৪ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটির মূল ভিত্তি ছিলেন।

১৯৫ বলে রাহানে দ্বাদশ ও ক্যারিয়ারের অন্যতম সেরা সেঞ্চুরি তুলেছেন প্যাট কামিন্সকে অফসাইডে দারুণ এক চার হাঁকিয়ে। ১২ চারে সাজানো ইনিংস দেখে দুই সাবেক আকাশ চোপড়া আর বিষেণ সিং বেদি যেভাবে রাহানেকে ‘অধিনায়ক, অধিনায়ক’ বলে বন্দনায় মেতেছেন, তাতে বুক কেঁপে উঠতে পারে কোহলির! টুইটারে আকাশ চোপড়া লিখেছেন, ‘রাহানের অন্যতম সেরা সেঞ্চুরি। বিদেশের মাটিতে অধিনায়কদের অন্যতম সেরা। অনুকরণীয় উদাহরণ। শ্রদ্ধা এবং প্রশংসা।’

রাহানের আড়ালে ঢাকা পড়ে গেছে জাদেজার ভীষণ ধৈর্যশীল ৪০ রানের ইনিংসটি। এমনিতে মারকুটে বলে পরিচিত বাঁহাতি অলরাউন্ডার যেভাবে ১০৪ বল খেলে একটি চারের মারে নিজেকে আটকে রেখেছেন, প্রশংসা করতেই হয়।

ভারতীয়রা চাইলে ধন্যবাদ দিতে পারেন অস্ট্রেলিয়ান ফিল্ডারদেরও। মেলবোর্নে খানিকটা বৃষ্টি হয়েছে এদিন, বৃষ্টি যেন মাখনের মতো গলে পড়েছে অজিদের হাতে। একদিনে হাফ ডজনের মতো ক্যাচ ছেড়েছেন তারা, যার দুটি আবার রাহানের। ৭৩ রানে একবার স্মিথের হাতে, আরেকবার ১০৪ রানে ট্রাভিস হেড ছেড়েছেন ভারত অধিনায়কের ক্যাচ।