চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

আদালত শেষ আশ্রয়স্থল, দুর্নীতি-অনিয়ম বরদাস্ত করবো না: প্রধান বিচারপতি

এই পবিত্র আদালত দেশের মানুষের শেষ আশ্রয়স্থল। এখানে কোনো প্রকার দুর্নীতি অনিয়মের ন্যুনতম উপস্থিতি বরদাস্ত করা হবে না বলে সুপ্রিম কোর্টের কর্মকর্তা কর্মচারিদের হুঁশিয়ার করে দিলেন প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী।

বুধবার বিকেলে সুপ্রিম কোর্ট লিগ্যাল এইড কমিটি ও মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন আয়োজিত ‘সুপ্রিম কোর্টে সরকারি আইন সহায়তা কার্যক্রমের মানোন্নয়নের লক্ষ্যে বেঞ্চ অফিসার, বেঞ্চ রিডার ও সেকশন সুপারদের নিয়ে সচেতনতামূলক কর্মশালা’ অনুষ্ঠানে প্রধান বিচারপতি এসব কথা বলেন।

Reneta June

তিনি বলেন, ‘আমি সুপ্রিম কোর্টের সমস্ত কর্মকর্তা কর্মচারিদের উদ্দেশ্যে দ্ব্যর্থহীন কণ্ঠে বলে দিতে চাই যে, এই পবিত্র আদালত দেশের মানুষের শেষ আশ্রয়স্থল। এখানে কোনো প্রকার দুর্নীতি অনিয়মের ন্যুনতম উপস্থিতি বরদাস্ত করবো না। এখানকার অনিয়ম দুর্নীতি নির্মূল করতে যেকোন পদক্ষেপ নিতে কুন্ঠাবোধ করবো না। অনিয়ম বা দুর্নীতি পরিলক্ষিত হলে সাথে সাথে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

বিজ্ঞাপন

এসময় প্রধান বিচারপতি আরও বলেন, ‘সুপ্রিম কোর্টের কর্মকর্তা কর্মচারিগণ অদম্য উৎসাহ নিয়ে অবিরাম কাজ করে যাচ্ছেন। কিন্তু কতিপয় বেঞ্চ অফিসার, বেঞ্চ রিডার এবং বিভিন্ন সেকশনের সুপারসহ অসাধু কিছু কর্মকর্তার জন্য সমস্ত প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়ে যাচ্ছে। আমি তাদের হুঁশিয়ার করে দিচ্ছি যে, দুর্দশাগ্রস্থ মানুষের কাছ থেকে কেউ সুযোগ নেয়ার চেষ্টা করলে কোনোভাবেই তা বরদাস্ত করবো না।’

প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী বলেন, ‘আমাদের যে বেতন হয়, সেটা কিন্তু জনগনের ট্যাক্সের টাকায় হয়। সে হিসেবে আমরা জনগণকে কতটুকু সেবা দিতে পেরেছি তা চিন্তা করতে হবে। যদি আমরা সেবা দিতে না পারি তাহলে সেটা হবে আমাদের ব্যর্থতা। ভালো কাজটা নিজেকেই দিয়ে শুরু করুন। মনে রাখবেন ভালো মন্দ কাজের জন্য একদিন কিন্তু আল্লাহর কাছে জবাবদিহি করতে হবে।’

আদালত প্রাঙ্গণে সবাই সমান উল্লেখ করে প্রধান বিচারপতি বলেন, ‘আদালত প্রাঙ্গণে প্রবেশের সাথে সাথে শক্তিমান, দুর্বল, ধনী, গরিব সকলের মধ্যে যাতে একই বিশ্বাস জন্মে যে তারা সকলেই সমান। আদালতের নিকট থেকে শুধুমাত্র আইন অনুযায়ী ন্যায় বিচার পাবেন সেই ব্যবস্থা করে দেয়ার দায়িত্ব আমাদের। আর বিচার প্রার্থী জনগণ সুপ্রিম কোর্টের শাখাগুলোতে যাতে কোন প্রকার দুর্ভোগের শিকার না হন তা নিশ্চিত করার দায়িত্বও আমাদের।’

সুপ্রিম কোর্ট লিগ্যাল এইড কমিটি ও মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন আয়োজিত এই অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন লিগ্যাল এইড সুপ্রিম কোর্ট শাখার চেয়ারম্যান হাইকোর্টের বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেন। সুপ্রিম কোর্ট অডিটোরিয়ামে আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিশেবে বক্তব্য রাখেন আপিল বিভাগে বিচারপতি ওবায়দুল হাসান, বিচারপতি বোরহান উদ্দিন, বিচারপতি কৃষ্ণা দেবনাথ ও সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেল বজলুর রহমান।