চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

আঘাতটা বুঝতে পারছি তবে সহিংসতা গ্রহণযোগ্য নয়: ম্যাক্রোঁ

ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ বলেছেন, তিনি বুঝতে পারছেন মহানবীর ব্যঙ্গচিত্র দেখে মুসলমানরা আঘাত পেয়েছেন। কিন্তু তার কারণে কোনো সহিংসতা গ্রহণযোগ্য নয়। 

আল জাজিরাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন, ‘জানি ব্যঙ্গচিত্র করলে মানুষ আঘাত পেতে পারে। তাই বলে সহিংসতাকে কখনো সমর্থন দিবো না।’

বিজ্ঞাপন

‘‘আমাদের স্বাধীনতা ও অধিকার রক্ষার দায়িত্ব আমাদেরই।’’

নিস শহরের চার্চে ছুরি নিয়ে হামলা চালিয়ে তিনজনকে হত্যার ঘটনার পেছনে বাইরের কারো সমর্থন আছে কিনা- তা খোঁজার চেষ্টা করছে ফ্রান্সের কর্তৃপক্ষ।

বিজ্ঞাপন

সেপ্টেম্বরের শুরুতে সাপ্তাহিক চার্লি হেবদোতে মহানবীর ব্যঙ্গচিত্র হওয়ার পরই বিতর্কের মুখে পড়ে ফ্রান্স।  কয়েকদিন পর সেই ব্যঙ্গচিত্র দেখিয়ে ক্লাসে আলোচনা করায় স্যামুয়েল প্যাটি নামের একজন শিক্ষকের শিরশ্ছেদ করে উগ্রপন্থী এক মুসলিম যুবক। তার কয়েকদিন পরই ঘটে নিস শহরের চার্চে হামলা।

ক্লাসে ব্যঙ্গচিত্র দেখানোয় শিক্ষক স্যামুয়েল প্যাটির শিরশ্ছেদের ঘটনার পর ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ বলেন, ফ্রান্স কখনো ব্যঙ্গচিত্র করার অধিকার ছাড়বে না।

তার এই বক্তব্যের পরে মুসলিম বিশ্বে প্রতিবাদ আরো তীব্র হয়। ওই দুই হামলার আগেও ম্যাক্রোঁ ইসলামী উগ্রপন্থার বিরুদ্ধে নতুন কঠোর অভিযানের প্রতিশ্রুতি দেন। যা বিশ্বজুড়ে মুসলমানদের কাছ থেকে বিতর্ক ও নিন্দার ঝড় তোলে।

ফ্রান্সে ব্যঙ্গচিত্রের ঘটনায় আফগানিস্তান, পাকিস্তান, বাংলাদেশ, মালি, মরিতানিয়া, লেবাননসহ বিভিন্ন মুসলিম দেশে শুক্রবার বিক্ষোভ হয়।

হামলার শঙ্কায় প্রবাসে থাকা ফ্রান্সের নাগরিকদের সতর্ক করে বার্তা পাঠানো হয়েছে।