চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

আকর্ষণ হারাচ্ছে রংপুর চিড়িয়াখানা

দর্শকদের আকৃষ্ট করার মতো কোনো জীব-জন্তু নেই, নেই বিরল প্রজাতির কোনো পাখিও, অবকাঠামোগত সুবিধাও ভালো নয়।

তাই দিন দিন দর্শনার্থী কমছে শহরের একমাত্র বিনোদন কেন্দ্র রংপুর চিড়িয়াখানায়। তারপরও এখনো যারা চিড়িয়াখানায় বেড়াতে আসছেন হতাশ হয়েই ফিরে যাচ্ছেন তারা ।

বিজ্ঞাপন

২৩ একর জায়গা নিয়ে ১৯৯১ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় রংপুর চিড়িয়াখানা। এটি বিভাগের একমাত্র চিড়িয়াখানা হওয়ায় নানাস্থান থেকে দর্শনার্থীরা ছুটে আসেন বিনোদনের আশায় । তবে এখানে নতুন কোনো পশু পাখী তো দুরের কথা আধুকিতার কোন স্পর্শ না থাকায় হতাশ দর্শনার্থীরা।

বিজ্ঞাপন

গত ২৬ বছরে নতুন কোন প্রাণী আনা হয়নি এই চিড়িয়াখানায়। বরং বয়সের ভারে নুয়ে পড়া অনেক প্রাণীই মারা গেছে নানা রোগে। এখন প্রায় প্রাণী শূন্য হয়ে পড়ছে এ বিনোদন কেন্দ্রটি। তারপরও শহরে তেমন আর কোন বিনোদন কেন্দ্র না থাকায় বাধ্য হয়েই দর্শনার্থীরা এসছেন এই চিড়িয়াখানায়ই ।

তবে দর্শকদেও চাহিদা পূরণে নানা সমস্যা ও সীমাবদ্ধতার কথা বললেন চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ।

সংকট কাটিয়ে রংপুর চিড়িয়াখানাটিকে বিনোদন উপযোগী করে গড়ে তোলার দাবী জানিয়েছেন এ অঞ্চলের বিনোদন প্রেমিরা।