চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

অস্ত্র জমা দিয়েছি, ট্রেনিং তো জমা দেইনি: দুই বছর পর শুটিংয়ে ফিরে হিমেল

নির্মাণ মুন্সিয়ানা দিয়ে আগেই দর্শকদের মুগ্ধ করেছেন নির্মাতা হিমেল আশরাফ। তাই ‘মেকিংয়ে’ উচ্চতর ডিগ্রী নেয়ার জন্য আগেই তিনি উড়াল দিয়েছিলেন মার্কিন মুলুকে। সুযোগ পেয়ে সেখানেই দেশের জনপ্রিয় তারকা তাহসান খান ও প্রবাসী অভিনেত্রী মোনালিসাকে নিয়ে একটি নাটকের মাধ্যমে নির্মাণে ফিরলেন হিমেল আশরাফ।

নাটকটির নাম ‘দেখা হবে’। প্রচার হবে আসন্ন ঈদুল আযহায় একটি বেসরকারি টিভিতে। যুক্তরাষ্ট্র থেকে তাহসান চ্যানেল আই অনলাইনকে বলেন, টিভির একজন উর্দ্ধতন কর্মকর্তা আমাকে হিমেলের কথা বলেন। এখানে আসার পর নাটকের গল্প পড়লাম, ভালো লাগলো। মোনার সঙ্গেও অনেকদিন কাজ হয়নি। সবসমিলিয়ে কাজ করে ভালো লেগেছে।

বিজ্ঞাপন

তবে শুধুমাত্র এ নাটকের জন্য যুক্তরাষ্ট্রে যাননি তাহসান খান। পরিচালক হিমেল আশরাফ বলেন, তাহসান ভাই তার কয়েকটা কাজে এসেছেন। এরমধ্যে নাটকের কাজটাও ছিল। তিনি বলেন, এ নাটকের গল্পটা এক্স বয়ফ্রেন্ড-গার্লফ্রেন্ডের। করোনাকাল তাদেরকে আবার মুখোমুখি করে দেয়। এরমধ্যে থাকবে বিভিন্ন রোমান্টিক বিষয়।

বিজ্ঞাপন

‘দ না ধ’, ‘শাড়ি’, ‘লাল নীল হলুদ বাতি’, ‘সব গল্প রুপ কথার নয়’, ‘মিস ফায়ার’ নাটকগুলো যারা দেখেছেন তাদের কাছে অতি পরিচিত নাম হিমেল আশরাফ। তিনি চলচ্চিত্রও বানিয়েছেন। তার নির্মিত ‘সুলতানা বিবিয়ানা’ ২০১৭ সালে অন্যতম প্রশংসিত একটি চলচ্চিত্র।

নতুন করে এবার ঢালিউড কিং শাকিব খানকে নিয়ে ‘প্রিয়তমা’ নামে নতুন নির্মাণ করবেন হিমেল আশরাফ। তার প্রি-প্রোডাকশনও আগাচ্ছেন তিনি। ২ বছর পর শুটিংয়ে ফেরা প্রসঙ্গে হিমেল বলেন, দেশের বাইরে কাজ করা ওতো সহজ নয়। টিম গোছাতে পারছিলাম না। যখন টিম তৈরি করলাম খোঁজ নিলাম কীভাবে কাজ করা যায়। এরমধ্যেই তাহসান ভাইয়ের এখানে আসার খবর পাই। সবকিছু মিলিয়ে হয়ে গেল।

নাটকটির শুটিং হয়েছে নিউইয়র্কের ম্যানহাটান, লং আইল্যান্ড, কোনি আইল্যান্ড, ডাম্বো, কুইনস ভিলেজ ও টাইমস স্কয়ারে। হিমেল আশরাফ বলেন, ১৭-১৯ জুলাই এ তিনদিন শুটিং করেছি। আরও একদিনের শুটিং বাকি। তিনি বলেন, এটি ব্যয়বহুল একটি কাজ। আমেরিকান ক্যামেরা, টেকনিশিয়ান নিয়ে কাজ করেছি।

করোনার কারণে বাংলাদেশি প্রায় ৫০ হাজার টাকায় একটি হাউজ ভাড়া নিয়ে কাজ করেছি। এছাড়া ইউনিটের সদস্যের নাস্তা, টিম নিয়ে যাতায়াতের জন্য উবার ভাড়া সবকিছু মিলিয়ে বাংলাদেশি টাকায় প্রোডাকশন খচর অনেক দাঁড়িয়েছে। নির্মাতার ভাষ্য, টাকার অঙ্ক বলতে চাইনা, তবে রিয়েলি এক্সপেনসিভ।

হিমেল আশরাফ বলেন, ২ বছর পর শুটিংয়ে ফিরে একটু ভয় লাগছিল! পরে মনে হলো অস্ত্র জমা দিয়েছি, ট্রেনিং তো জমা দেই নাই।