চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

অস্তিত্ব জানাতে আত্মঘাতী হামলার প্রস্তুতি জঙ্গিদের, পুলিশের সতর্কতা

রাজধানীতে আত্মঘাতী জঙ্গি হামলা হতে পারে- এমন আশঙ্কায় মাঠ পর্যায়ে পুলিশকে সর্বোচ্চ সতর্ক থাকার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। নিরাপত্তা বাড়াতে বলা হয়েছে পুলিশের সকল স্থাপনা ও যানবাহনে।

তবে পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের কর্মকর্তারা বলেছেন, ‘নতুন করে সংগঠিত হওয়ার চেষ্টা করলেও বড় ধরনের হামলার সক্ষমতা জঙ্গিদের নেই।’

বিজ্ঞাপন

ঈদুল আজহা সামনে রেখে ‘বেঙ্গল উলায়াত ঘোষণা’র নামে নিজেদের অস্তিত্ব জানান দিতে হামলার প্রস্তুতি নিয়েছে জঙ্গিরা- এমন খবর পাওয়ার পর রাজধানীতে পথে পথে চেক পোস্ট বসিয়ে তল্লাশি চালানো হচ্ছে।

এছাড়াও বিভিন্ন ধর্মীয় উপাসনালয় ও মাজারকেন্দ্রিক মসজিদে বাড়ানো হয়েছে গোয়েন্দা নজরদারি। নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে বিমান বন্দর, কূটনীতিক পাড়া ও পুলিশ স্টেশনসহ বিভিন্ন স্থাপনায়।

বিজ্ঞাপন

ব্যক্তিগত নিরাপত্তা নিশ্চিত করা ছাড়াও সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে সব পর্যায়ের পুলিশ কর্মকর্তা ও সদস্যদের।

ডিএমপির এডিশনাল কমিশনার মো. মনিরুল ইসলাম বলেন, ‘ইতিমধ্যে ওই জঙ্গি গোষ্ঠীকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করায় তাদের অনেক কর্মী নিষ্ক্রিয় হয়ে গেছে। তারপরও ভুলভাবে ধর্মীয় ব্যাখ্যা দিয়ে অধিক পূণ্যর আশায় নাশকতা তৈরি করার চেষ্টা করতে পারে। তবে তাদের তেমন সক্ষমতা নেই।’    

‘‘ঈদুল আজহাকে সামনে রেখে বিচ্ছিন্নভাবেও যাতে কোনো হামলা না চালাতে পারে সেই জন্য মাঠ পর্যায়ে পুলিশকে সর্ব্বোচ সতর্ক থাকার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।’’

নিষিদ্ধ হলেও কোনো কোনো জঙ্গি গোষ্ঠী এখনও অপতৎপরতা চালানের চেষ্টা করছে, বলে দাবি করেছেন গোয়েন্দা কর্মকর্তারা।

রাজধানীতে গত শুক্রবার রাতের ‘বোমা বিস্ফোরণ’কে পটকাবাজি ও শনিবার রাতে ট্রাফিক সার্জেন্টের মোটর সাইকেলে ‘বোমা’ পেতে রাখার ঘটনাকে বোমার মতো বস্তু ফেলে রেখে ভীতি ছড়ানোর চেষ্টা বলছেন তারা।