চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘তবুও অস্ট্রেলিয়াই চাপে থাকবে’

অ্যাশেজ টেস্ট

অ্যাশেজের প্রথম টেস্টের তৃতীয় দিনশেষে কিছুটা হলেও স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলতে পারছে ইংল্যান্ড। প্রথম ইনিংসে ব্যাটিং বিপর্যয়ের পর এ ইনিংসে ঘুরে দাঁড়িয়েছে জো রুটের দল। তাই দ্বিতীয় ইনিংসে অস্ট্রেলিয়াই উল্টো চাপে থাকবে বলে মনে করেন ইংল্যান্ডের সাবেক ক্যাপ্টেন অ্যালিস্টার কুক।

দ্বিতীয় দিনের খেলা শেষে দ্বিতীয় ইনিংসে ইংল্যান্ডের সংগ্রহ ২ উইকেটে ২২০ রান। অস্ট্রেলিয়ার প্রথম ইনিংসের স্কোরের থেকে এখনও ৫৮ রানে পিছিয়ে ইংলিশরা। তবে পুরো দিনজুড়ে অসাধারণ ব্যাটিংশৈলী প্রদর্শন করেছেন অধিনায়ক রুট এবং মালান। এজন্যই তাদের ওপর ভরসা রাখছেন সাবেক এই কিংবদন্তি ব্যাটসমান। এছাড়াও চাপ নেয়ার ক্ষেত্রে অস্ট্রেলিয়ার এই দলটিকে বেশ অপরিপক্ক মনে হয়েছে তার।

Reneta June

তিনি বলেন, ‘আমরা জানি এই অস্ট্রেলিয়া দলের চাপ নেয়ার ক্ষমতা তেমন নেই। সেটারই প্রমাণ আমরা দেখেছি ২০১৯ সালে ভারতের বিপক্ষে হেডিংলি টেস্টে।’

বিজ্ঞাপন

সাবেক এই অধিনায়ক অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে তাদের অতীত রেকর্ডের কথা তুলে ধরে ইংলিশ খেলোয়াড়দের অনুপ্রেরণা জোগানোর পাশাপাশি কোচিং স্টাফদের ও তাদের দায়িত্বের ব্যাপারে সতর্ক করে দেন।

‘অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ম্যাচে ফেরার ঘটনা এর আগেও অনেক ঘটেছে। কোচদেরও এখন প্রচুর দায়িত্ব, তাদের এখন সঠিক সময়ে সঠিক সিদ্ধান্ত নিজেদের প্রমাণ করতে হবে।’

ব্রিসবেনে প্রথম ইনিংসে আজ ৭ উইকেটে ৩৪৩ রান নিয়ে তৃতীয় দিনের খেলা শুরু করেছিল অস্ট্রেলিয়া। আগের দিন সেঞ্চুরি পাওয়া ট্রাভিস হেড তার ব্যক্তিগত রানকে দেড়শ’র গণ্ডি পার করালেন। টেল এল্ডার মিচেল স্টার্ক ও নাথান লিওনের কাছ থেকে পেলেন দারুণ সঙ্গ। আর তাতেই স্বাগতিকরা পেয়ে যায় বিশাল লিড।

জবাব দিতে নেমে প্রথম ইনিংসের মতোই ব্যাটিংয়ে ব্যর্থতার শঙ্কা দেখা দেয় ইংল্যান্ডের। তবে ডাভিড মালান এবং জো রুটের বড় জুটিতে ইংলিশরা ফাইটব্যাক করে। এই দুই ব্যাটার তৃতীয় উইকেটে ইতোমধ্যে ১৫৯ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটি গড়ে ফেলেছে। মালান ও রুট দুইজনই ১০টি বাউন্ডারিতে তাদের ইনিংস সাজিয়েছেন। সেঞ্চুরি থেকে তারা খুব বেশি দূরে নয়। ১৭৭ বলে মালান ৮০ এবং ১৫৮ বলে রুট ৮৬ রান নিয়ে আগামীকালের খেলা শুরু করবেন।