চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

অভিযোগ মিথ্যা, এশার বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করলো ঢা.বি

কোটা সংস্কার আন্দোলনের মধ্যে বহিষ্কার হওয়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সুফিয়া কামাল হল শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ইফফাত জাহান এশাকে দেয়া বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

বুধবার দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শৃঙ্খলা কমিটির সভায় এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

এর আগে পাঁচ সদস্যের কমিটি ১০ এপ্রিল রাতে সুফিয়া কামাল হলের ঘটনা তদন্ত করে। কমিটির তদন্তে এশার বিরুদ্ধে আনা রগ কাটার অভিযোগ মিথ্যা প্রমাণিত হওয়ায় তার বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করা হয়।

এ বিষয়ে ঢাবি উপাচার্য ড. মো. আখতারুজ্জামান চ্যানেল আই অনলাইনকে বলেন, তদন্ত কমিটির রিপোর্ট এবং প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে এশার বিরুদ্ধে রগ কাটার অভিযোগ মিথ্যা প্রমাণিত হয়েছে। তাই তার বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করা হয়েছে।

তিনি আরো জানান, ওই ঘটনায় জড়িত ২৬ জন শিক্ষার্থীর নাম এসেছে, তাদের বিরুদ্ধে পরবর্তীতে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বিজ্ঞাপন

এর আগে ছাত্রলীগের করা তদন্ত কমিটিও এশার বিরুদ্ধে কোনো প্রমাণ না পেয়ে তার বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করে নেয়।

তবে ওই ঘটনায় জড়িত থাকায় মোর্শেদা খানমসহ ২৪ নেতাকর্মীকে বহিষ্কার করে ছাত্রলীগ।

কোটা সংস্কার আন্দোলনের সময় গত ১০ এপ্রিল দিবাগত মধ্যরাতে কবি সুফিয়া কামাল হলের চতুর্থ বর্ষের ছাত্রী ও আন্দোলনের সমর্থক মোর্শেদা আক্তারকে নিজ রুমে ডেকে নিয়ে এশা নির্যাতন করেন বলে অভিযোগ করেন ওই হলের ছাত্রীরা।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এমন খবর প্রচারের পর এশাকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কারের দাবিতে আন্দোলন করেন ওই হলের ছাত্রীরা। এ সময় বিভিন্ন হল থেকেও ওই হলের গেটের বাইরেও বিক্ষোভ করে কয়েক হাজার ছাত্র।

এ সময় হলের ভেতর শারীরিক নির্যাতনের শিকার হন এশা। বিক্ষুব্ধ ছাত্রীরা তার গলায় জুতার মালাও পারিয়ে দেয় তারা।

এক পর্যায়ে এশাকে বিশ্ববিদ্যালয়, হল এবং ছাত্রলীগ থেকে বহিষ্কারের খবর আসার পর কিছুটা শান্ত হয় আন্দোলনকারীরা।

বিজ্ঞাপন