চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

অবৈধ সাপের খামারে অভিযান, ৪৯টি বিষধর সাপ উদ্ধার

নাটোরের নলডাঙ্গার বৈদ্যবেলঘরিয়া এলাকায় অবৈধ সাপের খামারে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা এবং ৪৯টি বিষধর সাপ উদ্ধার করে বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ বিভাগকে হস্তান্তর করা হয়েছে।

বুধবার বিকালে নলডাঙ্গা উপজেলা প্রশাসন ও বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ বিভাগ যৌথভাবে এই অভিযান পরিচালনা করেন। এসময় ৪৯টি বিষধর সাপ ২৯টি বাক্স এবং ৩৬টি সাপের ডিম উদ্ধার করা হয়।

বিজ্ঞাপন

প্রশাসন ও এলাকাবাসী সুত্র জানায়, নলডাঙ্গার বৈদ্যবেলঘরিয়া চৌধুরীপাড়া গ্রামের মোঃ নুরু মোহাম্মদের ছেলে শাহাদৎ হোসন (৩৫) এই সাপের খামারটি গড়ে তোলে। একটি টিন শেডের ঘরে, বৈজ্ঞানিক কোন পদ্ধতি ছাড়ায় চলছিল এই খামারটি।

বিজ্ঞাপন

চারিদিকে বন-জঙ্গল আর আবাদি এলাকায় এই খামার। যেখানে খামারি নিজেই জানেনা কি করে, কি উপায়ে সাবধনতা অবলম্বন করে সাপগুলো ব্যবস্থাপনা করতে হয়। খামারে নেই কোন বিদ্যুতের ব্যবস্থা, নেই কোন কাঁচের সুরক্ষিত বাক্স। খামারটিতে ছোট-বড় মিলে মোট ৪৯টি সাপ থাকলেও নেই কোন সঠিক ব্যবস্থাপনা-নেই কোন বৈধ কাগজপত্র। সাপের খামারটি অবৈধ।এ বিষয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হয়। এরপর এই অবৈধ সাপের খামারে অভিযান পরিচালনা করা হয়।

এ ব্যাপারে রাজশাহী বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগের বন্যপ্রাণী পরিদর্শক জাহাঙ্গাগীর কবির জানান, বিবিসিএফ এর তথ্যের ভিত্তিতে এই অভিযান করা হয়। সাপের খামারটি অবৈধ।

নলডাঙ্গার উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, নলডাঙ্গা উপজেলার বৈদ্যবেলঘরিয়া চৌধুরীপাড়া গ্রামে লাইসেন্স বিহীন অবৈধ সাপের খামারে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়।

এসময় বন্যপ্রাণী (সংরক্ষণ ও নিরাপত্তা) আইন, ২০১২ অনুযায়ী মালিককে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।