চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

অবৈধ অস্ত্র ও মাদক রাখার অভিযোগে হাজী সেলিমের ছেলের একবছরের কারাদণ্ড

অবৈধ অস্ত্র ও মাদক রাখার অভিযোগে সংসদ সদস্য হাজী সেলিমের ছেলে ঢাকা দক্ষিণ সিটির ৩০ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর ইরফান সেলিমকে এক বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

বিজ্ঞাপন

সোমবার সন্ধ্যায় ভ্রাম্যমাণ আদালত এ রায় দেয়।

বিজ্ঞাপন

রাজধানীর কলাবাগানে নৌবাহিনীর কর্মকর্তা এবং তার স্ত্রীর উপর হামলার ঘটনার মামলায় হাজী সেলিমের ছেলে ও কাউন্সিলর ইরফান সেলিমের চকবাজার দেবিদাস ঘাট লেনের বাসভবনে অভিযান চালিয়ে গুলিভর্তি পিস্তল ও বিদেশী মদ ও মাদকদ্রব্য উদ্ধার করে র‌্যাব।

রাজধানীর কলাবাগানে ঘটা ওই ঘটনায় ইরফান সেলিমসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়। ওই ঘটনায় হাজী সেলিমের ছেলে ও কাউন্সিলর ইরফান সেলিম ও তার দেহরক্ষী জাহিদ, গাড়ি চালক মিজানুর রহমানকে আটক করা হয়। আটকের পর আজকে বিকেলে তার গাড়ি চালক মিজানুর রহমানকে একদিনের পুলিশ রিমান্ড মঞ্জুর করে আদালত।

ধানমন্ডি থানার মামলায় তদন্ত কর্মকর্তা আশফাক রাজীব হাসান সুষ্ঠু তদন্তের প্রয়োজনে পাঁচ দিনের রিমান্ডের আবেদন করে তাকে আদালতে হাজির করলে আদালত একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

রাজধানীর নীলক্ষেত থেকে রোববার রাতে বইপত্র কিনে মোটরসাইকেলে করে সস্ত্রীক সেনানিবাস এলাকায় ফিরছিলেন নৌবাহিনীর লেফটেন্যান্ট ওয়াসিফ আহমেদ খান। কলাবাগান বাসস্ট্যান্ডে তাদের মোটরসাইকেলকে পেছন থেকে ধাক্কা দেয় সংসদ সদস্য হাজী মোহাম্মদ সেলিমের গাড়ি। তিনি এর প্রতিবাদ জানাতে গেলে গাড়ি থেকে বের হয়ে এসে কয়েকজন তার ওপর হামলা চালায়। বাধা দিতে গেলে তার স্ত্রীকেও লাঞ্ছিত করা হয়।

 

নৌবাহিনীর ওই কর্মকর্তা নিজেই বাদী হয়ে সোমবার সকালে হাজী সেলিমের ছেলে ইরফান সেলিমসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে ধানমন্ডি থানায় মামলা দায়ের করেন। পুলিশ গাড়ির ড্রাইভারকে গ্রেপ্তার ও গাড়িটি জব্দ করে।

ইরফান সেলিম ঢাকা-৭ আসনের সংসদ সদস্য হাজী সেলিমের ছেলে এবং ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের ৩০ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর।