চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

অনুষ্ঠানস্থলে প্রধানমন্ত্রী, শাহবাগ জুড়ে কঠোর নিরাপত্তা

কওমি শিক্ষার সর্বোচ্চ স্তর দাওরায়ে হাদিসের সনদকে মাস্টার্স ডিগ্রি সমমানের স্বীকৃতিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে সম্মাননা জানাতে ‘আল-হাইয়াতুল উলইয়া লিল জামিয়াতিল কওমিয়া বাংলাদেশ’ আয়োজিত ‘শুকরানা মাহফিল’ চলছে।

এ উপলক্ষে রাজধানীর শাহবাগ এলাকায় কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা করা হয়েছে। সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে এ শুকরানা মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

বিজ্ঞাপন

এরই মধ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং হেফাজত ইসলামীর আমির ও হাইয়াতুল উলইয়ার চেয়ারম্যান শাহ আহমদ শফী সেখানে উপস্থিত হয়েছেন।

থানা পুলিশ, মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি), সাদা পোশাকের গোয়েন্দা পুলিশ ছাড়াও আয়োজক সংগঠনের স্বেচ্ছাসেবীরা নিরাপত্তা ও শৃঙ্খলা রক্ষায় কাজ করছে।

এ অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ও এর চারপাশের এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ ও এপিবিএনের সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। শাহবাগ ও টিএসসি মোড়ে প্রস্তুত রাখা হয়েছে পুলিশের সাঁজোয়া যান।

ইউনিফর্মের পাশাপাশি সাদা পোশাকে বিপুল সংখ্যক পুলিশ সদস্য দায়িত্ব পালন করছেন।

রোববার সকালে সরেজমিন শাহবাগ, মৎস্যভবন, হাইকোর্টের সামনের এলাকা, দোয়েল চত্ত্বর, টিএসসি থেকে সোহরাওয়র্দী উদ্যানের প্রতিটি প্রবেশ পথে সতর্ক অবস্থা দেখা গেছে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী সদস্যদের।

এছাড়া প্রতিটি প্রবেশপথে বসানো হয়েছে আর্চওয়ে। মেটাল ডিটেক্টর ও হাতে তল্লাশীর মধ্য দিয়ে সভাস্থলে প্রবেশ করতে দেয়া হচ্ছে।

অনুষ্ঠানের কারণে রাজধানীর শাহবাগ মোড়, মৎসভবন, দোয়েল চত্বর এলাকায় ব্যারিকেড দিয়ে সবধরনের যানবাহন প্রবেশ নিষিদ্ধ করা হয়েছে। তবে ভেতরে সীমিত আকারে যানচলাচল করছে।

ডিএমপির রমনা বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) মারুফ হোসেন সরদার চ্যানেল আই অনলাইনকে বলেন, জনসভায় বিপুল জনসমাগমের কথা মাথায় রেখে পুরো সোহরাওয়ার্দী উদ্যান এলাকায় নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা হাতে নেয়া হয়েছে।

এরআগে ডিএমপির পক্ষ থেকে গণমাধ্যমে জানানো হয়, অনুষ্ঠান স্থলে আগতদের কোন প্রকার হ্যান্ডব্যাগ, ট্রলি ব্যাগ, দাহ্য পদার্থ বা ধারালো কোন বস্তু বহন না করার জন্য অনুরোধ করা হল।

কওমি মাদরাসার দাওরায়ে হাদিসের সনদকে স্নাতকোত্তর ডিগ্রির স্বীকৃতি দিয়ে সংসদে আইন পাস হয়। এ কারণেই প্রধানমন্ত্রীকে সংবর্ধনার জন্য শুকরানা মাহফিলের আয়োজন করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন