চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

অনলাইন ক্লাসে নতুন কোনো বিদেশি শিক্ষার্থী গ্রহণ করবে না যুক্তরাষ্ট্র

কোভিড-১৯’র প্রাদুর্ভাবে যুক্তরাষ্ট্র প্রশাসন একের পর এক বিস্ময়কর সিদ্ধান্ত গ্রহণ করছে। এবার মার্কিন প্রশাসন বলছে, অনলাইনে অধ্যয়নরত নতুন কোনো শিক্ষার্থী গ্রহণ করবে না।

শুক্রবার যুক্তরাষ্ট্রের ইমিগ্রেশন এন্ড কাস্টমস এনফোর্সমেন্ট এর পক্ষ থেকে নীতি পরিবর্তন বিষয়ে ঘোষণায় বলা হয়, যেসব বিদেশি শিক্ষার্থী শুধুমাত্র অনলাইনে পড়ালেখা করতে চাইছেন, নতুন করে তাদেরকে কোনো সুযোগ দেওয়া হবে না।

বিজ্ঞাপন

এর আগে বিদেশি শিক্ষার্থীরা অনলাইনে ক্লাস করলে যুক্তরাষ্ট্রে থাকতে পারবে না বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছিলো দেশটির প্রশাসন। এমনকি তাদের ভিসা বাতিল করারও কথা বলা হয়।

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

মূলত কোভিড-১৯’র প্রাদুর্ভাবের ফলে বিদেশি শিক্ষার্থীদের যুক্তরাষ্ট্রে থেকেই তাদের আগামী বসন্ত ও গ্রীষ্মকালীন কোর্স অনলাইনে করার অনুমতি দিয়েছিল স্টুডেন্ট অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ ভিজিটর প্রোগ্রাম (এসইভিপি)। কিন্তু কর্তৃপক্ষের এমন সিদ্ধান্ত তাদের বিস্মিত করে ও বিদেশি শিক্ষার্থীদের হতাশ করে।

পরে অবশ্য অনেক শিক্ষাবিদ, বিশ্ববিদ্যালয় ও আইন প্রণেতাদের তীব্র সমালোচনার মুখে সেই সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসে যুক্তরাষ্ট্র। তার কয়েকদিন পরই এখন নতুন সিদ্ধান্তের কথা জানাল দেশটি।

করোনাভাইরাসকে কেন্দ্র করে অভিবাসনের বিষয়ে ডোনাল্ড ট্রাম্প তার নীতিমালা বাস্তবায়নের চেষ্টা করছে নানাভাবে এবং বিদেশিদের জন্য বিভিন্ন ধরনের ভিসা স্থগিত করেছেন।

করোনাভাইরাসের প্রকোপ না কমার ফলে অনেক বিশ্ববিদ্যালয় তাদের সমস্ত ক্লাস অনলাইনে নিয়ে যাওয়ার কথা বলছে। বিশেষ করে হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয় ঘোষণা করেছে যে, বিরল কোনো ব্যতিক্রম ছাড়া ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের জন্য তার সমস্ত ক্লাস অনলাইনে পরিচালনা করবে।