চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

‘অনলাইনে আবেদনের ভিত্তিতে মশা নিধনের উদ্যোগ’

মশক নিয়ন্ত্রণ কার্যক্রমের অংশ হিসেবে এখন থেকে অনলাইনে আবেদনের ভিত্তিতে মশার প্রজননস্থলে কীটনাশক ছিটানোর উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। যার মাধ্যমে নগরবাসীকে ডেঙ্গুর প্রকোপ থেকে মুক্তি দিতে পারবেন বলে জানিয়েছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস।

বুধবার বিকালে নগর ভবনে অনলাইনের মাধ্যমে মশার প্রজননস্থলে কীটনাশক ছিটানো সেবা প্রদান কার্যক্রমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেন।

বিজ্ঞাপন

মেয়র বলেন, ‘কারো বাসা বাড়িতে বা বেজমেন্টে বা কারো নির্মাণাধীন বাসা বাড়িতে মশার লার্ভা বা লার্ভার বিস্তারক্ষেত্র রয়েছে কিনা, সেটা আমাদের পক্ষে জানা সম্ভব না৷ কিন্তু মানুষের বাসাবাড়িতে বা নির্মাণাধীন বাড়িতে বা মানুষের বাসার ফুলদানি-টব-টায়ারে মশার বিস্তার হয় সেটা আমরা জানি। এ ধরনের সমস্যাগুলো সমাধানের জন্যই বছরব্যাপী মশক নিয়ন্ত্রণ কার্যক্রমের কার্যক্রমের অংশ হিসেবে এখন থেকে ঢাকাবাসীর জন্য অনলাইনে আবেদনের ভিত্তিতে মশার প্রজননস্থলে কীটনাশক ছিটানোর উদ্যোগ নিয়েছি। আশাকরি, এর মাধ্যমে ঢাকাবাসীকে ডেঙ্গুর প্রকোপ থেকে মুক্তি দিতে পারবো। আমরা ঢাকাবাসীকে ডেঙ্গুর প্রকোপ থেকে মুক্তি দেব।‘

তাপস আরও বলেন, ‘এই সেবা পেতে মানুষের বাসাবাড়িতে মশার লার্ভা কিংবা মশার বিস্তারক্ষেত্র থাকলে সেজন্য আমাদের মোবাইল কোর্ট যে জরিমানা করে, তার চাইতেও অনেক কম মূল্যে বলা যায় নামমাত্র মূল্যে আমরা ঢাকাবাসীকে এ সেবা প্রদান করব।‘

বছরব্যাপী সমন্বিত মশক নিয়ন্ত্রণ কার্যক্রমের আওতায় এখন হতে একজন সেবাগ্রহীতা ডিএসসিসির আওতাধীন এলাকার নিজ বাসা, ভাড়া বাসা, বাণিজ্যিক ভবন বা অন্যান্য স্থাপনায় জমে থাকা মশার লার্ভা বিনষ্ট করতে মশার প্রজননস্থলে কীটনাশক ছিটানো সেবা নিতে পারবেন। সেবা পেতে সেবাগ্রহীতাকে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ওয়েব পোর্টালের নিদিষ্ট লিংকের মাধ্যমে অনলাইনে আবেদন করতে হবে। পাঁচটি ক্যাটাগরিতে সেবা গ্রহণ করা যাবে এবং সেবা গ্রহীতাকে নির্দিষ্ট পরিমাণ অর্থ সেবা মূল্য হিসেবে প্রদান করতে হবে। আবেদনের পর ৩ কার্যদিবসের মধ্যে এই সেবা প্রদান কার্যক্রম সম্পন্ন করা হবে।

স্থাপনার ক্যাটাগরি ও সেবার হার:

বিজ্ঞাপন

ক) ৩ (তিন) কাঠা পর্যন্ত এক ইউনিট বাড়ি (৫ তলা পর্যন্ত) – ২ হাজার টাকা

খ) ৩-৫ কাঠা পর্যন্ত ফ্ল্যাট বাড়ি (প্রতি ফ্লোর) – ২ হাজার ৫০০ টাকা

গ) ৫- ১০ কাঠা পর্যন্ত এ্যাপার্টমেন্ট ১০ তলা পর্যন্ত (প্রতি ফ্লোর) – ৩ হাজার ৫০০ টাকা

ঘ) এ্যাপার্টমেন্ট ১০ তলার উপরে বেজমেন্টসহ – ৫ হাজার টাকা

ঙ) বাণিজ্যিক ভবন – ৮ হাজার টাকা

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা শাহ মো. ইমদাদুল হক, প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (ডা.) শরীফ আহমেদ, প্রদান বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা এয়ার কমডোর মো. বদরুল আমিন, সচিব আকরামুজ্জামানসহ অন্যান্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।