চ্যানেল আই অনলাইন
হৃদয়ে বাংলাদেশ প্রবাসেও বাংলাদেশ

অক্টোবরে গণহারে ভ্যাকসিন প্রয়োগের পরিকল্পনা রাশিয়ার

বিশ্ব মহামারী করোনাভাইরাস মোকাবেলায় আগামী অক্টোবর মাস থেকে নিজেদের তৈরি ভ্যাকসিন গণহারে প্রয়োগের পরিকল্পনা করছে রাশিয়া।

শনিবার রুশ স্বাস্থ্যমন্ত্রী মিখাইল মুরশেকো দেশটির গণমাধ্যমে বলেছেন, অক্টোবর থেকে দেশের চিকিৎসক এবং শিক্ষকদের ভ্যাকসিন প্রয়োগের মাধ্যমে এ কার্যক্রম শুরু হবে।

বিজ্ঞাপন

গত সপ্তাহে নিজেদের ভ্যাকসিন আবিষ্কারের কথা জানায় রাশিয়ার গবেষকরা।

বিজ্ঞাপন

রুশ স্বাস্থ্যমন্ত্রী আরও বলেছেন, ট্রায়ালে যারা ভ্যাকসিন নিয়েছেন তাদের স্বাস্থ্যের সার্বিক পরিস্থিতি পর্যক্ষেণে একটি অ্যাপ তৈরি করা হয়েছে। নতুন ওই অ্যাপে ভ্যাকসিন গ্রহণকারীর সব ধরনের তথ্য হালনাগাদ করে রাখা হয়।

তবে রাশিয়ার আরেকটি ভ্যাকসিন নিয়ে বিবিসি বলছে, গামালিয়া ন্যাশনাল রিসার্চ সেন্টারের ভ্যাকসিন ১৫ আগস্টের মধ্যে জনসাধারণের জন্য বাজারে ছাড়া হতে পারে।

বিজ্ঞাপন

রুশ উপ-প্রধানমন্ত্রী তাতয়ানা গোলিকোভ বলেছেন, ‘আগেস্টর মধ্যে টিকার নিবন্ধন হয়ে যাবে। সেপ্টেম্বরে গণউৎপাদন শুরু হবে।’

নিবন্ধন পাওয়ার পর আরেকটি ট্রয়াল শুরু হবে ভ্যাকসিনটির। ১ হাজার ৬শ’ মানুষের উপর ওই ট্রায়াল চালানো হবে। উৎপাদন চলাকালে ট্রয়াল চলবে বলেও জানানো হয়।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের তৈরি আরেকটি ভ্যাকসিন শর্তসাপেক্ষে সেপ্টেম্বরে নিবন্ধন পাবে। সেটি অক্টোবরে বাজারে আসতে পারে বলে জানানো হয়।

রুশ সরকার সামনের  শরত এবং শীতকালের আগেই করোনার ভ্যাকসিন পেতে চায়। ওই সময়ে স্বাভাবিকভাবে ঠাণ্ডা, ফ্লু এবং শ্বাসযন্ত্রে নারারকম ভাইরাল সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ে।

বিশ্বের শীর্ষ চতুর্থ করোনা সংক্রমণ দেশ রাশিয়া। দেশটিতে এ পর্যন্ত করোনা আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে ৮ লাখ ৪৫ হাজারে অধিক। মারা গেছে ১৪ হাজার ৫৮ জন।

বিশ্বব্যাপী অসংখ্য দেশের গবেষক ভ্যাকসিন আবিষ্কারে কাজ করছেন। কিন্তু চলতি বছরের মধ্যে নিরাপদ করোনা ভ্যাকসিন পাওয়া নিয়ে সন্দিহান যুক্তরাষ্ট্রের সংক্রমক রোগ বিশেষজ্ঞ ডা. অ্যান্থনি ফৌসি।