৫৭ ধারা

সাংবাদিক বান্ধব নয় এমন কোনো আইন হবে না বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। সাইবার অপরাধ দমন করতে তথ্যপ্রযুক্তি আইনে ৫৭ ধারা সংযুক্ত করা হলেও সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে এর অপব্যবহার হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন তিনি।এই ধারাকে তাই আরও স্পষ্ট করে ডিজিটাল সিকিউরিটি আইন করা হচ্ছে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘সংবিধানে মত প্রকাশের কথা বলা হয়েছে। এর সঙ্গে সাংঘর্ষিক কোনো আইন হলে তা সঙ্গে সঙ্গেই বাতিল হতে বাধ্য। নতুন আইনে স্বচ্ছ সাংবাদিকতা ব্যাহত হবে না।’রোববার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাগর-রুনী মিলনায়তনে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন মন্ত্রী।নতুন আইনের আগে ৫৭ ধারার অপব্যবহার রোধ করতে নির্দেশনা দেয়া আছে জানিয়ে তিনি বলেন,‘ ৫৭ ধারায় মামলা হলেই সাংবাদিককে হয়রানি না করার প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেয়া হয়েছ

By নাসিমুল শুভ on রবিবার , ১৩ অগাস্ট ২০১৭ ১৭:৩৯

৫৭ ধারা বাতিল করিবেন না হুজুর, আমি বড়ই ভালবাসি ফেলিয়াছি এই আইনকে। আহা, এই আইন বাতিল হইলে আমি কেমন করিয়া যাহাকে দেখিতে নারি, তাহাকে শায়েস্তা করিবো? এই আইন বাতিল হইলে আমি যাহাকে ঈর্ষা করি তাহাকে একহাত কেমনে দেখাইবো? যাহার উচিত কথায় অঙ্গ জ্বলিয়া যায়, তাহাকে সমুচিত জবাব দিব কি প্রকার? না না হুজু্‌র ধর্মাবতার, এই আইন বাতিল করিবেন না, যদি একান্ত করিতেই হয় তাহলেই কিন্তু ইহার বদলে আরো কঠিন করিয়া আরো একটি উদোর পিন্ডি, বুদোর ঘাড়ে টাইপ আইন চাহিয়াতিছি। না হইলে কিন্তু ভোট দিব না হু, না মানে অন্ধ-তোষামোদি আর ,করিবো না বলে রাখলুম। ( ভুলেই গিয়াছিলাম যে, আজকাল তো নির্বাচিত হইতে ভোটের কোন দরকার নাই) ভোট হইতে তোষামোদি ভাল, ইহাতে তেলের প্রকারভেদ বোঝা যায়, কোন ব্র্যান্ডের তেল বা দেশি কি বিদেশি সব বোঝা যায়, এমনকি

By গোধূলি খান on শনিবার, ০৫ অগাস্ট ২০১৭ ১৭:০০

যেখানে সেখানে ক্ষমতার দাপট আর তুচ্ছ কারণে ৫৭ ধারার অপপ্রয়োগ দলের জন্য আত্মঘাতি উল্লেখ করে এই অপপ্রয়োগ বন্ধ করতে নেতাকর্মীদের প্রতি নির্দেশ দিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।শেখ কামালের ৬৯তম জন্মদিন উপলক্ষ্যে জাতীয় প্রেসক্লাবে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।তিনি বলেন, ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের পর বিএনপি যে আশার আলো দেখছে তা অচিরেই নিভে যাবে। কেননা ভারতে নির্বাচনের সময় নরেন্দ্র মোদির ক্ষমতায় আসার সম্ভাবনা দেখে ফল প্রকাশের আগেই তারা মিষ্টি ফুল নিয়ে ভারতীয় দূতাবাসে উপস্থিত হয়েছিলেন। তখনও লাভ হয়নি, এখনও ষোড়শ সংশোধনী নিয়ে খুশি হলে কোন লাভ হবে না।বিএনপি উন্নয়নের মহাসড়ক থেকে দেশের জনগণকে ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে বিচ্যুত করতে চায় উল্ল

By চ্যানেল আই অনলাইন on শনিবার, ০৫ অগাস্ট ২০১৭ ১৫:০৩

বিভিন্ন মহল থেকে তথ্যপ্রযুক্তি আইনের বিতর্কিত ৫৭ ধারা বাতিলের দাবি জোরালো হয়ে ওঠার সময়ে এর অপপ্রয়োগ চূড়ান্ত আকার ধারণ করেছে। সাম্প্রতিক সময়ে এধারার মাত্রাতিরিক্ত প্রয়োগের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে চলেছেন সাংবাদিকেরা। কেবল সাংবাদিক নন ছাত্র, শিক্ষক, আইনজীবী, রাজনৈতিক কর্মী, সাধারণ ফেসবুক এক্টিভিস্টদের কেউই রেহাই পাচ্ছেন না হয়রানি থেকে। সকল মহল থেকে এধারা বাতিলের দাবি ওঠলেও সরকারের পক্ষ থেকে একের পর এক বিভ্রান্তিমূলক বক্তব্যে একে টিকিয়ে রাখার চেষ্টা চলছে। বাতিল হবে, বাতিল করা উচিত- এমন ইঙ্গিত সংশ্লিষ্টদের পক্ষ থেকে মাঝে মাঝে করা হলেও উদ্যোগ নেই। বিপরীতে যা কিছু তা কেবল আশ্বাস আর ইঙ্গিতেই সীমাবদ্ধ।আইসিটি আইনের ৫৭ ধারায় বলা হয়েছে, ওয়েবসাইটে প্রকাশিত কোনও ব্যক্তির তথ্য যদি নীতিভ্রষ

By কবির য়াহমদ on বৃহস্পতিবার, ০৩ অগাস্ট ২০১৭ ২০:৩৪

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ প্রতিমন্ত্রীর দেয়া ছাগলের মৃত্যু সংবাদ ফেসবুকে শেয়ার করার অভিযোগে ৫৭ ধারায় মামলা এবং ওই সাংবাদিক গ্রেফতার হওয়ার ঘটনায় খুলনার ডুমুরিয়া থানার ওসি সুকুমার বিশ্বাসকে খুলনা পুলিশ লাইনে প্রত্যাহার করা হয়েছে।বুধবার রাতে পুলিশ হেড কোয়ার্টারের নির্দেশে খুলনার পুলিশ সুপার নিজামুল হক মোল্যা তাকে পুলিশ লাইনে প্রত্যাহার করেন।এর পরিপ্রেক্ষিতে রাত সাড়ে ৮টায় ওসি সুকুমার বিশ্বাস ডুমুরিয়া থানার ওসি তদন্ত আব্দুল খালেকের নিকট তার দায়িত্ব বুঝিয়ে দেন।এর আগে  ৫৭ ধারায় গ্রেফতার হওয়া সাংবাদিক আব্দুল লতিফকে অন্তর্বর্তীকালীন জামিন দিন আদালত। বুধবার বেলা সাড়ে ১১টায় সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট নূসরাত জাবিনের আদালত ১০ হাজার টাকার বন্ডে এই অন্তবর্র্তীকালীন জামিন ম

By চ্যানেল আই অনলাইন on বৃহস্পতিবার, ০৩ অগাস্ট ২০১৭ ০০:০৬

তথ্যপযুক্তি আইনের ৫৭ ধারায় দেশের যেকোন থানায় মামলা নিতে পুলিশ সদর দফতরের আইন শাখার অনুমতি লাগবে বলে শীর্ষ কর্মকর্তাদের নির্দেশনা দিয়েছেন পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) একেএম শহীদুল হক।বুধবার পুলিশ সদর দফতরে বাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে এক বৈঠকে এমন নির্দেশনা দেন তিনি। আইজিপির এমন নির্দেশনার পর এ সংক্রান্ত একটি আদেশ জারি করে পুলিশ সদর দফতর।আইনের যথাযথ প্রয়োগের মাধ্যমে অপরাধীকে আইনের আওতায় আনতে এবং নিরীহ ব্যক্তি যেন হয়রানির শিকার না হয় তা নিশ্চিতে মামলা রুজুর পূর্বে কিছু নির্দেশনার কথা জানানো হয় এই আদেশে।এই নির্দেশনায় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (সংশোধন) আইন, ২০১৩ এর ৫৭ ধারায় সংঘটিত অপরাধ সংক্রান্ত মামলা রুজুর ক্ষেত্রে অত্যন্ত সতর্কতা অবলম্বন করা এবং অভিযোগ সম্পর্কে কোনরূ

By আরেফিন তানজীব on বুধবার, ০২ অগাস্ট ২০১৭ ২২:০১

তুচ্ছ কারণে ৫৭ ধারার অপপ্রয়োগ ঠেকাতে তথ্যমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।রাজধানীর পরিসংখ্যান ভবনের সামনের সড়কে ডায়াডাক্ট ও স্টেশন নির্মাণ কাজের উদ্বোধন শেষে উপস্থিত সাংবাদিকদের এ কথা বলেন তিনি।সেখানে আগামী জাতীয় নির্বাচনে সেনা মোতায়েনসহ গণমাধ্যমের প্রশ্ন ছিলো বিতর্কিত ৫৭ ধারা নিয়ে।মেট্রোরেল নির্মাণ প্রকল্পের প্যাকেজ ৩ ও প্যাকেজ ৪ এর আওতায় মেট্রোরেলের ডায়াডাক্ট ও স্টেশন নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করে মন্ত্রী জানিয়েছেন, হলি আর্টিজানের ঘটনার কারণে ৮ মাস পিছিয়েছে মেট্রোরেলের কাজ। সাময়িক অসুবিধা মেনে নিতে নগরবাসীর প্রতি আহ্বান জানান মন্ত্রী।জাইকার অর্থায়নে ২২ হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে ২০১২ সালে শুরু হয় মেট্রোরেলের কাজ। চলবে ২০২৪

By রোকসানা আমিন on বুধবার, ০২ অগাস্ট ২০১৭ ১৫:০৭

এবার ছাগলের নামও যোগ হলো ৫৭ ধারায়। তবে, যে সে ছাগল নয়, মন্ত্রী হস্তান্তর করেছিলেন এমন ছাগল। দুর্ভাগ্যজনকভাবে ছাগলটি ইহধাম ত্যাগ করে, আর সেটা নিয়ে ফেসবুকে খবর শেয়ার করার কারণে ৫৭ ধারার মামলায় শ্রীঘরে এক সাংবাদিক।ঘটনা দক্ষিণের জেলা খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলা সদরে। ছাগল নিয়ে ফেসবুকে পোস্ট দেওয়ার কারণে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) আইনের ৫৭ ধারার মামলায় গত রাত আড়াইটার দিকে সাংবাদিক আব্দুল লতিফ মোড়লকে গ্রেফতার করে নিয়ে যায় পুলিশ। তিনি খুলনার দৈনিক প্রবাহের ডুমুরিয়া উপজেলা প্রতিনিধি।মামলা হওয়ার পর গ্রেফতার অভিযান পরিচালনায় পুলিশ অবশ্য বেশি সময় নেয়নি। রাত ৯টার দিকে সুব্রত ফৌজদার নামে একজন লতিফের বিরুদ্ধে ৫৭ ধারায় মামলা করেন, তার ঘণ্টা ছয়েকের মধ্যে পুলিশ লতিফকে গ্রেফতার করে নিয়ে যায়।

By চ্যানেল আই অনলাইন on মঙ্গলবার, ০১ অগাস্ট ২০১৭ ১৫:১০

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষক ড. ফাহমিদুল হকের বিরুদ্ধে একই বিভাগের শিক্ষক আবুল মনসুর আহাম্মদের করা ৫৭ ধারার মামলাটি আপাততঃ প্রত্যাহার হচ্ছে না। সহকর্মীর বিরুদ্ধে মামলা, মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে বিভাগটির সাবেক-বর্তমান শিক্ষার্থী, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, সংবাদকর্মীদের প্রতিবাদ সমাবেশের পর সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে জরুরি সভা ডেকে কোনো ফলাফলে আসতে পারেনি একাডেমিক কমিটি।বৈঠক সূত্রে জানা যায়, ড. ফাহমিদুল হক যদি ক্লোজ গ্রুপটিতে করা পোস্টের জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন তাহলে মামলা প্রত্যাহারের বিষয়টি বিবেচনা করবেন ড. আবুল মনসুর আহাম্মদ।রোববার একাডেমিক কমিটির সভা শুরু হয় বেলা ৩ টায় চলে বিকাল সাড়ে ৫টা পর্যন্ত। তবে আড়াই ঘণ্টার এই সভাতেও বিভাগের শিক্ষকের বি

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারাকে 'কালা কানুন' আখ্যায়িত করে তা থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ফাহমিদুল হককে অব্যাহতি দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়কে লজ্জার হাত থেকে বাঁচানোর আহ্বান জানিয়েছেন শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। পাশাপাশি স্বাধীন কণ্ঠরোধী আইনের এ ধারাটিকে বাতিলেরও দাবি তোলা হয়।রোববার সকালে অপরাজেয় বাংলার পাদদেশে আয়োজিত এক সমাবেশ ও মানববন্ধন থেকে এ দাবি জানানো হয়।ফেসবুকের একটি গোপন গ্রুপে দেওয়া পোস্টকে কেন্দ্র করে গত বৃহস্পতিবার সহযোগী অধ্যাপক ড. ফাহমিদুল হকের বিরুদ্ধে ৫৭ ধারায় মামলা করেন তারই সহকর্মী অধ্যাপক ড. আবুল মনসুর আহম্মেদ।সমাবেশে বক্তব্য দেন সাবেক তথ্য কমিশনার ও সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক সাদেকা হালিম, আন্তর্জাতিক স

By সাখাওয়াত আল আমিন on রবিবার , ১৬ জুলাই ২০১৭ ১৩:১৭