২১ আগষ্ট

'সমাবেশে মহিলা এবং পুরুষদের বসার জায়গা ছিল আলাদা। আমি আইভি আন্টির (প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমানের স্ত্রী) পাশেই ছিলাম। হঠাৎ ২০-২২ বছরের একটি ছেড়ে গা ঘেঁসে আমাদের পাশে চলে আসলো। কেন মহিলাদের পাশে, জানতে চাইলে সেই ছেলেটি বললো আমাকে র‌্যাব পাঠিয়েছে। কিছুক্ষণ পরেই দেখি ছেলেটি আর নেই। এর পর এক মিনিটও যেতে পারেনি। এমন সময়ই বিকট শব্দে গ্রেনেডের বিস্ফোরণ। আইভি আন্টি আর আমি দুজনেই পড়ে গেলাম। পড়ে গিয়েই জ্ঞান হারিয়ে ফেলি।'২১ আগস্ট বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের সমাবেশে গ্রেনেড হামলার সেই ভয়াল স্মৃতির বর্ণনা দিচ্ছিলেন সারা শরীরে গ্রেনেডের অসংখ্য স্প্রিন্টার বয়ে বেড়ানো ঢাকা মহানগর মহিলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহি সদস্য রাশিদা আক্তার রুমা। কথাগুলো বলতে বলতে চোখের কোণ গড়িয়ে জল বের

By সাখাওয়াত আল আমিন on সোমবার, ২১ অগাস্ট ২০১৭ ১৬:৫৩

ঘটনার এক যুগ পেরিয়ে গেলেও এখনো একুশে আগস্টের সেই মর্মান্তিক গ্রেনেড হামলার বিচারশেষ হয়নি। ঢাকার এক নম্বর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে ওই ঘটনায় দুই মামলার বিচার চলছে। রাষ্ট্রপক্ষ বলছে, ন্যায়বিচারের স্বার্থে সব আইনী প্রক্রিয়া অনুসরণ করতে গিয়েই বিচারে সময় লাগছে।২০০৪ সালের একুশে আগস্ট বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের সমাবেশে গ্রেনেড হামলায় নিহত হয়েছিলেন আওয়ামী লীগ নেত্রী আইভি রহমানসহ ২৪ জন। দেশের বড় হামলাগুলোর মধ্যে সেটি ছিলো একটি। ওই ঘটনায় হত্যা ও বিস্ফোরক আইনে দু’টি মামলা হলেও তদন্তকে ভিন্ন খাতে নিয়ে যাওয়া হয়। ওই সময় জজ মিয়া কাহিনীর মাধ্যমে মামলাকে ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করা হয়।তবে ওয়ান ইলেভেনের তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময় মামলার নতুন করে তদন্ত হয়। চার্জশিটে অভিযুক্ত হন চারদলীয় জোট সরক

By পরাগ আজিম on শনিবার, ২০ অগাস্ট ২০১৬ ২২:৪৭

ঘটনার এক যুগ পেরিয়ে গেলেও এখনো একুশে আগস্টের সেই মর্মান্তিক গ্রেনেড হামলার বিচারশেষ হয়নি। ঢাকার এক নম্বর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে ওই ঘটনায় দুই মামলার বিচার চলছে। রাষ্ট্রপক্ষ বলছে, ন্যায়বিচারের স্বার্থে সব আইনী প্রক্রিয়া অনুসরণ করতে গিয়েই বিচারে সময় লাগছে।২০০৪ সালের একুশে আগস্ট বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের সমাবেশে গ্রেনেড হামলায় নিহত হয়েছিলেন আওয়ামী লীগ নেত্রী আইভি রহমানসহ ২৪ জন। দেশের বড় হামলাগুলোর মধ্যে সেটি ছিলো একটি। ওই ঘটনায় হত্যা ও বিস্ফোরক আইনে দু’টি মামলা হলেও তদন্তকে ভিন্ন খাতে নিয়ে যাওয়া হয়। ওই সময় জজ মিয়া কাহিনীর মাধ্যমে মামলাকে ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করা হয়।তবে ওয়ান ইলেভেনের তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময় মামলার নতুন করে তদন্ত হয়। চার্জশিটে অভিযুক্ত হন চারদলীয় জোট সরক

By পরাগ আজিম on শনিবার, ২০ অগাস্ট ২০১৬ ২২:৪৭