১৪ দল

শেখ হাসিনাকে প্রধানমন্ত্রী রেখে ছোট পরিসরের সরকারের অধীনে আগামী নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে বলে জানিয়েছেন ১৪ দলের সমন্বয়ক মোহাম্মদ নাসিম। সোমবার ধানমন্ডি ৩/এ আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর কার্যালয়ের নতুন ভবনে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন ১৪ দলের সমন্বয় সভা শেষে সংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন। এ সময় তিনি অভিযোগ করে বলেন, ‘খালেদা জিয়া আত্মপক্ষ সমর্থনের নামে মিথ্যাচার এবং গণতন্ত্র ভণ্ডুলের চেষ্টা করছে।’ তিনি বলেন: বিএনপি দুর্নীতির মহাকাব্য রচনা করেছিল হাওয়া ভবন তৈরি করে। খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে যে দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে তা অনুসন্ধান করতে ১৪ দল দাবি জানায়। তা তদন্ত করে জনগণের সামনে তুলে ধরতে হবে কোথায় কোথায় অর্থপাচার করা হয়েছে। এই অর্থপাচারের সঙ্গে খালেদা জিয়ার পরিবার কীভাবে জড়িত

By চ্যানেল আই অনলাইন on সোমবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৭ ১৪:০৬

স্বাস্থ্যমন্ত্রী এবং ১৪ দলের সমন্বয়ক মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা শেষ সময়ে বিতর্ক এড়িয়ে সম্মানের সঙ্গে অবসরে যাবেন বলে ১৪ দল প্রত্যাশা করে। বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে ১৪ দলের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য এবং স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম। তিনি বলেন: প্রধান বিচারপতির পদ অত্যন্ত সম্মানের। কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য, মাননীয় প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা পদে এসে বারবার পদটিকে বিতর্কিত করার চেষ্টা করেছেন। এটা সকলের জন্য অত্যন্ত দুঃখজনক। সর্বশেষ তিনি ষোড়শ সংশোধনী নিয়ে যে পর্যবেক্ষণ দিয়েছেন তা সমগ্র জাতিকে হতাশ করেছে। তিনি এখন অসুস্থ হয়েছে

By মাহবুব মোর্শেদ on বৃহস্পতিবার, ০৫ অক্টোবর ২০১৭ ১৬:১৭

রোহিঙ্গা ইস্যুতে মিয়ানমারের নেত্রী অং সান সু চি’র দেয়া বক্তব্য কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয় বলে মন্তব্য করেছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন ১৪-দলীয় জোট। বুধবার রাজধানীর ধানমণ্ডিস্থ আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এক বৈঠকে ১৪ দলের নেতারা এ মন্তব্য করেন। ১৪ দলের মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিম বলেন, সু চির এ বক্তব্য সম্পূর্ণভাবে প্রত্যাখ্যান করছি। আমরা শুধু নই, এই বক্তব্যের বিরুদ্ধে হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের নেতারাও। সু চির এই বক্তব্য কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়। তিনি আজকে সামরিক শক্তির পক্ষে, মানবতার নন। তিনি কীভাবে এই নির্যাতনকারীদের প্রশ্রয় দিচ্ছেন? তিনি বলেন, সামরিক বাহিনী যারা মিয়ানমারের নিরীহ মানুষকে হত্যা করছে, তারা শুধু মিয়ানমারের রোহিঙ্গাদের ন

By মাহবুব মোর্শেদ on বুধবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৭ ১৬:৫৯

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারত সফর নিয়ে বিএনপি মিথ্যাচার করছে অভিযোগ করে ১৪ দলের সমন্বয়ক স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, ভারতের সঙ্গে অতীতের সকল সমস্যার সমাধান করছেন দেশনেত্রী শেখ হাসিনা। বিএনপি এবং তার ৭৫ পরবর্তী দোসররা দীর্ঘদিন ক্ষমতায় থেকেও সমস্যা সমাধানের পরিবর্তে তা জিইয়ে রেখে রাজনীতি করেছে। এখন প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফর নিয়ে বিএনপি মিথ্যারের রাজনীতি করছে। শনিবার ১৪ দলের সভা শেষে ধানমণ্ডিস্থ আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে প্রেস ব্রিফিংয়ে তিনি এ কথা বলেন। সভায় সভাপতিত্ব করেন জাসদ একাংশের সভাপতি শরিফ নুরুল আম্বিয়া। সভার আলোচনায় সাম্প্রতিক রাজনৈতিক বিভিন্ন ইস্যুর পাশাপাশি ঢাকায় অনুষ্ঠিত আইপিইউ সম্মেলন, জঙ্গিবাদ মোকাবেলা থেকে শুরু করে প্রধানমন

By মাহবুব মোর্শেদ on শনিবার, ০৮ এপ্রিল ২০১৭ ১৬:২০

অসাংবিধানিকভাবে কাউকে ক্ষমতায় আসতে দেওয়া হবে না বলে মন্তব্য করেছেন ১৪ দলে মুখপাত্র এবং স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী  মোহাম্মদ নাসিম। তিনি বলেন, বিএনপির এখনও দুরভিসন্ধি নিয়ে এগোচ্ছে। তাদের সাম্প্রতিক বক্তব্যে এটা স্পষ্ট। তারা আগামী নির্বাচন বানচালের চেষ্টা করবে। আজ সোমবার আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার ধানমন্ডিস্থ রাজনৈতিক কার্যালয়ে ১৪ দলের সভা শেষে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন। সভায় সভাপতিত্ব করেন ওয়ার্কাস পার্টি সভাপতি বেসামরিক বিমান এবং পর্যটন মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন। আগামী নির্বাচনে (২০১৯) চৌদ্দ দল ঐক্যবদ্ধভাবে নির্বাচন করবে জানিয়ে নাসিম বলেন: পরবর্তী নির্বাচন অনুষ্ঠানে সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতা রয়েছে। ১৪ দলও এ নির্বাচন অনুষ্ঠানে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। আমরা এক সঙ্গে আছ

By চ্যানেল আই অনলাইন on সোমবার, ০৬ মার্চ ২০১৭ ১৬:২৩

রাজনৈতিক পরিবেশ স্বাভাবিক রাখতে আগামী জাতীয় নির্বাচন পর্যন্ত বিএনপিকে ধৈর্য ধরতে বলেছেন, আওয়ামী লীগের সভাপতি মন্ডলীর সদস্য এবং স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম। ১৪ দলের পরিধি না কমে বরং বাড়ার ইঙ্গিত দিয়েছেন  তিনি। আজ দুপুরে রাজধানীর ধানমন্ডিস্থ আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে কেন্দ্রীয় ১৪ দলের বৈঠক শেষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি। কেন্দ্রীয় ১৪ দলের মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিম বলেন, ‘বিএনপি রাজনীতিতে ধৈর্যের পরিচয় দিচ্ছে। তাই আশা করি, আগামী নির্বাচনে তারা অংশ গ্রহণ করবেন।’ তিনি বলেন, 'সকলকে ধৈর্যের পরিচয় দিতে হবে। বিএনপিকে আরো দু’বছর ধৈর্য ধরতে হবে। নির্ধারিত সময় শেষে জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।’ বিএনপির সাথ

By চ্যানেল আই অনলাইন on শনিবার, ১৪ জানুয়ারী ২০১৭ ১৭:২০

চক্রান্তে ব্যর্থ হয়ে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করতে বিএনপি-জামায়াত গুপ্তহত্যা চালাচ্ছে বলে অভিযোগ করেছে ১৪ দল। ১৪ দল এবং আওয়ামী লীগের নেতারা বলেন, গুপ্ত হত্যা হচ্ছে যুদ্ধাপরাধীদের বাঁচাতে। তাদের সঙ্গে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া মানুষ হত্যা করে ক্ষমতায় যেতে চায়। সাম্প্রতিক গুপ্তহত্যা নিয়ে বিভিন্ন কর্মসূচী পালন করছে ১৪ দল। তারই অংশ হিসেবে আওয়ামী লীগ সভাপতির ধানমন্ডি কার্যালয়ে খ্রিস্টান এবং বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের নেতৃবৃন্দের সঙ্গে ১৪ দলের মতবিনিময় সভায় ১৪ দলের নেতারা এসব কথা বলেন। ১৪ দলের মুখপাত্র এবং আওয়ামী লীগের সভাপতিম-লীর সদস্য মোহাম্মদ নাসিম বলেন, রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণে একের পর এক নৈরাজ্য সৃষ্টি করছে বিএনপি এবং জামায়াত। তিনি বলেন,' খালেদা জিয়া পার্লামেন্ট হারিয়

বিএনপি-জামায়াতের বিরুদ্ধে গুপ্তহত্যা এবং দেশবিরোধী ষড়যন্ত্রের অভিযোগ এনে তার প্রতিবাদে রাজধানীসহ সারাদেশে ১ ঘণ্টা মানবন্ধন করেছে ১৪ দল। নেতারা বলেছেন, বিএনপি-জামায়াতের সঙ্গে কোনো আলোচনা হতে পারে না। আগুন সন্ত্রাস যেভাবে দমন করা হয়েছিল, সেভাবেই গুপ্তহত্যা বন্ধ করবে সরকার। জঙ্গিবাদী তৎপরতার বিরেুদ্ধে ঈদের পর ১৫ জুলাই থেকে ২১ জুলাই এক সপ্তাহ দেশজুড়ে গণপ্রতিরোধ সপ্তাহ পালন করবে ১৪ দল।গাবতলী থেকে সায়েদাবাদ পর্যন্ত বিকেল ৩টা থেকে ৪টা পর্যন্ত হাতে হাত রেখে গুপ্তহত্যার বিরুদ্ধে অবস্থান নেয় আওয়ামী লীগসহ ১৪ দল। সঙ্গে আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠনগুলো ছাড়াও ছিলো বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন ও শ্রেণী-পেশার মানুষ।১৪ দলের সঙ্গে সংহতি প্রকাশ করে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মানববন

By চ্যানেল আই অনলাইন on রবিবার , ১৯ জুন ২০১৬ ১৮:৫০

সাম্প্রতিক হত্যা প্রসঙ্গে ১৪ দলের নেতারা বলেছেন, যারা সাধারণ মানুষের জীবনের ওপর হাত দিয়েছে তাদের খুঁজে বের করে ধ্বংস করে দেওয়া হবে। গুপ্তহত্যা এবং জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে ১৪ দলের সমাবেশে নেতারা বিএনপিকে উদ্দেশ্য করে বলেন, জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে বিএনপি সাহায্য করতে চাইলে জামায়াতকে ছেড়ে কাজ করতে হবে। মঙ্গলবার দেশের গুপ্তহত্যা এবং জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে ১৪ দলের কর্মসূচী অনুযায়ী ১৪ দলের কেন্দ্রীয় নেতারা ঝিনাইদহে এসে প্রথমেই ৭ জুন হত্যাকাণ্ডের শিকার পুরোহিত আনন্দ গোপাল গাঙ্গুলির বাড়িতে যান। সেখানে তার পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলেন তারা। তাদের সান্ত্বনা দেয়ার পাশাপাশি হত্যাকারীদের শাস্তি দেওয়ার কথা বলেন।এরপর পাশের বিদ্যালয়ের মাঠে জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে শান্তি সমাবেশে অংশ নেন

By চ্যানেল আই অনলাইন on মঙ্গলবার, ১৪ জুন ২০১৬ ২১:৫৫

গুপ্তহত্যাকারীদের ধরিয়ে দিতে সকলকে সহযোগিতা এবং সমর্থনের আহ্বান জানিয়েছে ১৪ দল। জঙ্গিবাদ এবং টার্গেট কিলিং এর বিরুদ্ধে ১৪ জুন ঝিনাইদহে ও ১৭ জুন পাবনায় শান্তি সমাবেশ এবং ১৯ জুন রাজধানীসহ সারা দেশে বিকেল ৩টা থেকে ৪টা পর্যন্ত মানববন্ধন করবে ১৪ দল।আওয়ামী লীগ সভাপতির ধানমন্ডি কার্যালয়ে যৌথসভা থেকে ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে সবাইকে ১৪ দলের কর্মসূচী সফল করার আহ্বান জানানো হয়।জঙ্গিবাদ এবং টার্গেট কিলিং এর প্রতিবাদে ১৪ দলের বিভিন্ন কর্মসূচি সফল করতে যৌথসভায় জোটের মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিম বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া, প্রকাশ্যে খুনিদের পক্ষ নিয়েছেন।

By চ্যানেল আই অনলাইন on রবিবার , ১২ জুন ২০১৬ ১৯:৪৪